২৩ হাজারের নীচে থাকল দৈনিক সংক্রমণ, মৃত্যুহারে আরও ধস

0

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি সম্ভবত একটা স্থিতিশীল অবস্থায় পৌঁছোচ্ছে। কারণ শুক্রবার নতুন সংক্রমণ থাকল ২৩ হাজারের নীচে, যা বৃহস্পতিবারের তুলনায় কিছুটা কম। অন্যদিকে, সংক্রমণের হারও বাড়েনি। কলকাতায় সংক্রমণ বৃহস্পতিবার থেকে একটু বাড়লেও গত রবিবারের চূড়ার থেকে তা অনেকটাই কম রেকর্ড করা হয়েছে। আর অন্যদিকে, মৃত্যুহার আরও ধসে চলেছে রাজ্যে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ২২ হাজার ৬৪৫ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লক্ষ ৬৩ হাজার ৬৯৭।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ৬৮৭ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৬ লক্ষ ৯৮ হাজার ২০১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ২০ হাজার ১৩ জন। রাজ্যে মৃত্যুহার রয়েছে ১.০৭ শতাংশে। কিছু দিন আগেও মৃত্যুহার ছিল ১.২১ শতাংশ।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৪৮৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৯৩০ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার রয়েছে ৯১.১২শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার কমল

সংক্রমণের দাপট কতটা রয়েছে সেটা ভালো করে বুঝতে গেলে দৈনিক সংক্রমণের হারের দিকে তাকাতে হয়। প্রতি ১০০ টেস্টে কত জনের রিপোর্ট পজিটিভ হচ্ছে, সেটাকেই সংক্রমণের হার বলে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সংক্রমণের হার সামান্য কমেছে বেড়েছে। এই সময়সীমায় রাজ্যে ৭২ হাজার ৭২৫টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ফলত, এ দিন সংক্রমণের হার ছিল ৩১.১৪ শতাংশ। বৃহস্পতিবার এই হার ছিল ৩২.১৩ শতাংশ।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার পরিস্থিতি

কলকাতার পরিস্থিতি গোটা রাজ্যের মধ্যে সব থেকে খারাপ। তবে রবিবার শহরের সংক্রমণ চূড়ায় পৌঁছোনোর পর, চার দিন ধরেই সংক্রমণ কিছুটা কম রেকর্ড করা হচ্ছে। যদিও কলকাতায় সংক্রমণ সরকারি ভাবে চূড়া পেরিয়েছে কি না, সেটা ভালো করে বুঝতে গেলে আরও একটু অপেক্ষা করতেই হবে।

শহরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬ হাজার ৮৬৭ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৪ হাজার ১৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ২ হাজার ৯৯১ এবং ১ হাজার ৬৮০ জন। কলকাতায় ৭ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ২০ হাজার ৭, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ৩ লক্ষ ৭৯ হাজার ১৬৩। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪৯ হাজার ১৬৮ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৭ হাজার ৭৬৯ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৫৩৮৯ এবং ৫০৮১ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গের বাকি ২১টি জেলায় সংক্রমণ কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত –১১২

সুস্থ হলেন –২১

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত –১২৪

সুস্থ হলেন –৩০

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত –৫৯৬

সুস্থ হলেন –১৩৬

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত –৮০

সুস্থ হলেন –১০

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত –২১৬

সুস্থ হলেন –৬৮

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত -২২১

সুস্থ হলেন -৬৭

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত -২০২

সুস্থ হলেন –৫৩

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত -৬৪৮

সুস্থ হলেন –১৭৫

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত -৩৯০

সুস্থ হলেন –১৬০

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -৮১৬

সুস্থ হলেন -২১৯

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত –৯৮৪

সুস্থ হলেন –২৯৪

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত –৯৩৭

সুস্থ হলেন –৪৩৫

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত- ৭৬৭

সুস্থ হলেন –২৬০

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত -৩৬৫

সুস্থ হলেন –১১৫

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -২২৬

সুস্থ হলেন –১০২

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত -২৪৬

সুস্থ হলেন -৮১

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত–৪৭৯

সুস্থ হলেন –১৬৩

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত -২০১

সুস্থ হলেন- ৫৯

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত –১,৫৩৩

সুস্থ হলেন –৪৮৮

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত –১,৩৯৪

সুস্থ হলেন -৪৪৫

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত –১,২২৩

সুস্থ হলেন –৬৩৫

উল্লিখিত জেলাগুলির মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে হাওড়ায়। ২ করে রোগী মারা গিয়েছে বীরভূম, হুগলি এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণায়। ১ জন করে রোগীর মৃত্যু হয়েছে জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, নদিয়া এবং পশ্চিম বর্ধমানে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন