Dilip Ghosh
বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: লাগামহীন বিতর্কিত মন্তব্য করে শোরগোল সৃষ্টি করা যেন নিজের রোজনামচায় পাকা করে ফেলেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শনিবার পুরশুড়ায় এক পদযাত্রার শেষ দলীয়সভায় তাঁর মন্তব্য শুনে এমনটাই মত রাজনীতির কারবারিদের!

দিলীপ এ দিন বলেন, “এখন সব জায়গায় কাটমানি। এই কাটমানি-তোলাবাজি শেষ করতে তৃণমূলকে হারাতে হবে। বাঙালি মানে আজ চোর-চিটিংবাজ হয়ে গিয়েছে। এই বদনাম ঘোচানোর জন্য বাংলায় পরিবর্তন আনতে হবে”।

জানা গিয়েছে, দিলীপের এমন মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণে শান দিচ্ছে তৃণমূল। রাজ্যের শাসক দলের উচ্চ নেতৃত্বের দাবি, দিলীপ হিন্দি সাম্রাজ্যবাদীদের প্রতিনিধি। তাঁর মন্তব্য থেকেই স্পষ্ট বাঙালিদের কী চোখে দেখে বিজেপি! তিনি তৃণমূলকে আক্রমণ করতে গিয়ে গোটা বাঙালি জাতিটাকেই চোর বলে অপমান করলেন।

স্বাভাবিক ভাবেই দিলীপের এহেন মন্তব্যে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। দলীয় রাজনীতি করতে গিয়ে তিনি কেন বাঙালিকে অপমান করছেন, এমন প্রশ্নও তুলতে ছাড়ছেন না একাংশ।

আরও পড়ুন শেষ ছ’দশকে চন্দ্রাভিযানের সংখ্যা ১০৯টি, সফল হয়েছে কতগুলি?

একই সঙ্গে এ দিন কলকাতার আইসিসিআরের দলীয়সভায় দিলীপ ভারতের মুন মিশন চন্দ্রযান ২-এর ব্যর্থতার দায় চাপান কেন্দ্রের বিরোধীদের উপর। তিনি বলেন, “চন্দ্রযান ২ ব্যর্থ হতেই নকশাল আনন্দ করেছেন। অন্য দিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভেবেছিলেন, চন্দ্রযান ২ যদি চাঁদে পৌঁছে যায় তা হলে তাঁর সরকার ভেঙে যাবে। কষ্টে ছিলেন মমতা। পাকিস্তান আর ইমরানের খানের সঙ্গে সুর মিলিয়ে কথা বলছেন মমতা”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন