Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে হ্রাস, সুস্থতা বাড়ায় রাজ্যে কমল সক্রিয় রোগীর সংখ্যা

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শেষ কয়েক দিন ধরে রাজ্যের দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যায় ধীরে ধীরে অবনমন দেখা যাচ্ছে। বিপরীতে বাড়ছে সুস্থতার হার। তবে দু:শ্চিন্তার কারণ একটাই দৈনিক সংক্রমণের হার এখনও ২৫ শতাংশের উপরেই রয়েছে। আবার দৈনিক মৃতের সংখ্যাও দেড়শোর উপরে থাকছে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

রবিবার স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৪২২ জন। যা আগের দিনে থেকে কিছুটা কম। এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১২ লক্ষ ৬৭ হাজার ৯০।

Loading videos...

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৯ হাজার ৪২৯ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ লক্ষ ২২ হাজার ২০১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১৪ হাজার ৩৬৪ জন।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ৩০ হাজার ৫২৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১,১৬৩ জন সক্রিয় রোগী কমেছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৮৮.৫৭ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার সামান্য কমল

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণে প্রায় আটশোর মতো কমেছে। তবে সংক্রমণের হার কিছুটা কমেছে। শেষ তিন দিন ধরে সংক্রমণের হার যে রকম ছিল, এ দিন তার থেকে কিছুটা কমই রেকর্ড করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে টেস্ট হয়েছে ৬৯ হাজার ১৪৫টি। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ২৬.৬৪ শতাংশ। গত সোমবার এই হারটা ছিল ৩২ শতাংশের কাছে। রাজ্যের সামগ্রিক সংক্রমণের হার বর্তমানে রয়েছে ১০.৬২ শতাংশ। শনিবার পর্যন্ত মোট ১ কোটি ১৯ লক্ষ ২৫ হাজার ৫৬১টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার পরিস্থিতি

রাজ্যে যে দুই জেলায় করোনা সংক্রমণ সব থেকে বেশি, সেই দুই জেলাতেই সংক্রমণ আগের দিনের থেকে অনেকটাই কমেছে। কলকাতায় ২৪ এপ্রিলের পর থেকে সব থেকে কম সংক্রমণ রেকর্ড করা হয়েছে।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩,০৫৬ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৩,৭৭১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৩,৬৯৭ এবং ৪,০৩৬ জন। কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৪৬ জন করে রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ৭৮ হাজার ৭৩৩, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৭০ হাজার ৬৩৫। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৪ হাজার ২০১ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৭ হাজার ২২ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৪,১৯১ এবং ৩,৫৮৬ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

সংক্রমণ এখনও উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে থাকলেও রাজ্যে বাকি জেলায় সেটা কিছুটা হলেও থিতু হচ্ছে। বেশ কয়েকটি জেলায় সংক্রমণ তো আগের থেকে অনেকটাই কমে গিয়েছে। এর ফলে সক্রিয় রোগীও কমছে সংশ্লিষ্ট সেই সব জেলায়।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা বাদে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের অন্যান্য জেলায় নতুন সংক্রমণ এবং সুস্থতার সংখ্যা কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত – ২১৩

সুস্থ হলেন – ১২৯

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত – ২৫৬

সুস্থ হলেন – ২৫৮

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত – ৭৩১

সুস্থ হলেন – ৬৬১

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৪

সুস্থ হলেন – ৭১

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত – ৬৬২

সুস্থ হলেন – ৪৫৬

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৮০

সুস্থ হলেন – ২৬৩

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৯২

সুস্থ হলেন – ১৬৭

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত – ১৬৪

সুস্থ হলেন – ২৫৭

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত – ১৭৪

সুস্থ হলেন – ৪১১

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ১,০৯৫

সুস্থ হলেন – ১,০৪১

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত – ৩৮৫

সুস্থ হলেন – ৪৯৩

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৬৬৩

সুস্থ হলেন – ৭৯৩

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৬১২

সুস্থ হলেন – ৬০২

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৭৪৯

সুস্থ হলেন – ৫৫৯

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৭

সুস্থ হলেন – ১৬৭

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৭৮০

সুস্থ হলেন – ৮৫৪

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৬১৫

সুস্থ হলেন – ৭৬০

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত –১৮৩

সুস্থ হলেন – ১৬৭

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত – ১,২৪৮

সুস্থ হলেন – ১,২৩৮

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত – ১,৩১২

সুস্থ হলেন – ১,১৮৬

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ১,২৩৯

সুস্থ হলেন – ১,১৬৩

গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগী কমেছে কোচবিহার, কালিম্পং, উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম বর্ধমান, উত্তর ২৪ পরগণা, এবং কলকাতায়।

আরও পড়তে পারেন: Corona crisis: ‘দুয়ারে অ্যাম্বুলেন্স’ পরিষেবা চালু হল শিলিগুড়িতে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন