‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্প নিয়ে বড়ো ঘোষণা, ফর্ম ফিল আপের নিয়ম আরও সহজ করল রাজ্য সরকার

0

কলকাতা: ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ (Lakshmir Bhandar) প্রকল্প নিয়ে বড়ো ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। শুক্রবার নবান্ন থেকে জারি করা এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, এতদিন এই প্রকল্পের ফর্ম ফিল আপের সময় আবেদনকারীকে নির্দিষ্ট কয়েকটি কার্ড সঙ্গে রাখতে হতো। তবে এ বার থেকে আর সেই সমস্ত কার্ড না থাকলেও চলবে।

সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, স্বাস্থ্যসাথী কার্ড (Swasthyasathi Card), আধার কার্ড (Aadhaar Card), তফসিলি জাতি বা তফসিলি উপজাতি সার্টিফিকেট না থাকলেও এ বার থেকে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে’-এর আবেদন করা যাবে। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকেই নির্দিষ্ট কার্ড করিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গিয়েছে, যাচাইয়ের পর যদি মনে হয়, আবেদনকারীর ওই সমস্ত কার্ড পাওয়ার যোগ্যতা রয়েছে, তবে তিনি এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের জন্য কোনও আবেদনকারীর নির্দিষ্ট কোনো কার্ড না থাকলে সেক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসনের প্রতিনিধিরা নির্দিষ্ট আবেদনকারীর বাড়ি বাড়ি পৌঁছে গিয়ে যাতে নির্দিষ্ট কার্ড করিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেবেন।

‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পে তফসিলি জাতি-উপজাতির মহিলারা এখন পাচ্ছেন মাসে ১০০০ টাকা। আর সাধারণ পরিবারের মহিলারা মাসিক ৫০০ টাকা পাচ্ছেন। বৃহস্পতিবারই এক কোটির বেশি মহিলার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে এই প্রকল্পের সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবর মাসের টাকা। বাকি ৫৯ লক্ষ মহিলার অ্যাকাউন্টে অতি দ্রুত টাকা পৌঁছে দেওয়ার জন্য জেলাশাসকের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

উল্লেখ্য, এ বারের বিধানসভা ভোটের ইস্তেহারে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা। মন্ত্রিসভায় প্রকল্প পাশ করা হয় তার পর। ১.৬ কোটি পরিবার এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড দেখালেই প্রকল্পে আবেদন করা যায়। পাশাপাশি পরিচয়পত্র হিসেবে লাগে আধার কার্ড। আর তফসিলি জাতি ও তফসিলি উপজাতি গোষ্ঠীভুক্ত মহিলাদের ক্ষেত্রে সঙ্গে জমা দিতে হয় শংসাপত্র। এ বার প্রয়োজনীয় কার্ড না থাকার সমস্যা থেকে রেহাই দিতে বিশেষ উদ্যোগ নিল রাজ্য।

আরও পড়তে পারেন: 

বাড়ল টেস্ট, রাজ্যে স্বস্তি দিয়ে কমল সংক্রমণের হার

বর্তমান এবং প্রাক্তন রাজ্য সভাপতির সামনেই কাটোয়ায় মারামারি বিজেপি কর্মীদের

৬ বছর ধরে নিখোঁজ বৃদ্ধাকে ঘরে ফেরাল জয়নগর

ত্রিপুরায় আক্রান্ত তৃণমূল সাংসদ সুস্মিতা দেব, গাড়ি ভাঙচুর

হোয়াটসঅ্যাপ চ্য়াট যদি সত্যিই ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপ্ট’ করা হয় তা হলে বলিউডের চ্যাট কী ভাবে ফাঁস হয়ে যায়

অতিরিক্ত চিন্তা ফেলতে পারে বড়ো বিপদে, জানুন কী ভাবে মুক্তি পাবেন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন