ওয়েবডেস্ক: আগামী ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে কৃষিঋণের বরাদ্দ প্রায় দ্বিগুণ পরিমাণের কাছাকাছি বাড়াতে চলেছে রাজ্য সরকার। একই সঙ্গে কৃষকের নেওয়ার উপর সুদের হারও হচ্ছে অর্ধেক।

নবান্ন সূত্রে খবর, আগামী আর্থিক বছরে কৃষিঋণের বরাদ্দ বাড়িয়ে করা হচ্ছে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা। যা চলতি ২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে ছিল ৫,২০০ কোটি টাকা। অন্য দিকে কৃষকের নেওয়া ঋণের উপর যেখানে সুদের হার ছিল বার্ষিক ৪ শতাংশ, তা কমিয়ে নিয়ে আসা হচ্ছে ২ শতাংশে।

কয়েক দিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষক-বন্ধু নামের একটি প্রকল্প চালু করেছেন। যেখানে রাজ্যের ৭২ লক্ষ কৃষক পরিবারকে আর্থিক সহায়তা-সহ একাধিক পরিষেবার আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। বিশদ পড়ুন নীচের লিঙ্ক ক্লিক করে-

বছরের শেষ দিনে কৃষকদের জন্য জোড়া উপহার মুখ্যমন্ত্রীর

সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর কৃষিঋণ মুকুবের হিড়িক পড়ে যায়। বিভিন্ন রাজ্য সরকারের তরফে কৃষিঋণ মুকুবের কথা ঘোষণা করা হয়। এ হেন পরিস্থিতিতে কৃষিঋণে বরাদ্দ বাড়িয়ে সুদের হার কমিয়ে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

পাশাপাশি নবান্ন সূত্রে খবর, রাজ্যের প্রত্যন্ত এলাকায় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখা নেই। কোথাও থাকলেও ঋণের জন্য আবেদন করেও কৃষকেরা হতাশ হন। ফলে রাজ্যের তরফে সমবায় ব্যাঙ্কের মাধ্যমে কৃষিঋণ দেওয়ার উপর জোর দেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here