কলকাতা: আগামী ২৫ অক্টোবরের মধ্যে রাজ্যের ১১টি পুরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। স্বাভাবিক ভাবেই সেগুলিতে নির্বাচন অবশ্যাম্ভাবী। কিন্তু তার পরেই আগামী নভেম্বর এবং ডিসেম্বর মাসে আরও ছ’টি পুরসভার মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। ফলে সব মিলিয়ে এই ১৭টি পুরসভার নির্বাচন একই সঙ্গে করানোর তাগিদে প্রত্যেকটিতেই প্রশাসক বসাতে চলেছে রাজ্য সরকার।

কয়েক দিন ধরেই রাজ্যের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির তরফে দাবি করা হচ্ছে, মেয়াদ শেষ হতে যাওয়া পুরসভাগুলিতে সরকার ভোট করতে ভয় পাচ্ছে। ওই পুরসভাগুলিতে রাজ্যের শাসক দল ব্যাকফুটে রয়েছে বুঝতে পেরেই সময় মতো ভোট-ভাবনা থেকে বিরত থাকছে। যদিও এ ক্ষেত্রে রাজ্যের যুক্তি অন্য। পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, পৃথক ভাবে ভোটগ্রহণ না করে ওই ১৭টি পুরসভার ভোট একই সঙ্গে করতে আগ্রহী রাজ্য সরকার। একই সঙ্গে সাম্প্রতিক মহেশতলা বিধানসভার উপনির্বাচনের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ভোট নিয়ে যাঁরা ভয়ের কথা বলছেন, তাঁদের নিশ্চয় মনে আছে মহেশতলার ফলাফলের কথা।

প্রশাসনিক সূত্রের খবর, আগামী ২৫ অক্টোবরের মধ্যেই মেয়াদ ফুরোচ্ছে আলিপুরদুয়ার, মেখলিগঞ্জ, হলদিবাড়ি, ডালখোলা, বালুরঘাট, চাকদহ, পানিহাটি, হাবড়া, ডায়মন্ড হারবার, দুবরাজপুর এবং বর্ধমান পুরসভার। আবার আগামী দু’মাসের মধ্যেই মেয়াদ ফুরোবে হাওড়া, বহরমপুর ও কৃষ্ণনগরের মতো ছয় পুরসভায়।


ভোটার সচেতনতায় মদের বোতলে কমিশনের প্রচার স্টিকার, উদ্ভট উদ্যোগে বিপাকে প্রশাসন


জানা গিয়েছে, পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের তরফে গত ৯ অক্টোবর এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, চলতি মাসেই মেয়াদ শেষ হতে যাওয়া ১১ পুরসভায় প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করবেন সংশ্লিষ্ট মহকুমাশাসকেরা। তাঁরাই পুরসভার দৈনন্দিন কাজ ও নাগরিক পরিষেবার দেখভাল করবেন। বাকি যে পুরসভাগুলির মেয়াদ ফুরোতে চলেছে, সেখানেও একই ভাবে বসানো হবে প্রশাসক।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন