pachayet-election-and-develpment

বিশেষ প্রতিনিধি: অনুমোদন হয়ে যাওয়া এবং চলতে থাকা প্রকল্পগুলির জন্য ৭০ শতাংশ টাকা প্রতিটি দফতরকে দিয়ে দিল রাজ্য সরকারের অর্থ দফতর। নতুন অর্থবর্ষের একেবারে শুরুতেই।

সম্প্রতি জেলা সফরগুলিতে মুখ্যমন্ত্রী আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছিলেন পঞ্চায়েত ভোটের জন্য যেন উন্নয়নের কাজ থমকে না যায়। ভোট যেমন চলবে, তেমনই চলবে উন্নয়নমূলক কাজও। কারণ চলমান প্রকল্পগুলির সঙ্গে নির্বাচনী আচরণবিধির কোনো সম্পর্ক নেই। সেই মতো মুখ্যসচিবকে নির্দেশও দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্দেশ মতো মার্চের মাঝামাঝি অর্থ দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যসচিব। পাশাপাশি অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রর সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেইমতোই নতুন অর্থবর্ষের শুরুতেই দফতরগুলিকে প্রকল্পের টাকার সিংহভাগ দিয়ে দিল অর্থ দফতর।

টাকা পাঠানোর পাশাপাশি মুখ্যসচিবের কাছ থেকে আরও একটি নির্দেশ পেয়েছে দফতরগুলি। তাতে বলা হয়েছে, এই টাকা জুন মাসের মধ্যে শেষ করতে হবে। যে দফতর তা শেষ করতে পারবে না, তাঁরা প্রকল্পের বাকি টাকা তো পাবেই না এমনকি খরচ না হওয়া টাকাও অর্থ দফতরকে্ ফিরিয়ে দিতে হবে।

২০১৭-১৯ অর্থবর্ষে রাজ্য সরকার ৫৭,৭৭৮ কোটি টাকা পরিকল্পনা খাতে খরচ করেছে। সরকারের লক্ষ্য চলতি অর্থবর্ষে আরও বেশি টাকা খরচ করা।

চলতি প্রকল্পগুলি রূপায়ণের পাশাপাশি দফতরগুলিকে নতুন প্রক্লেপ রূপরেখাও জমা দিতে বলা হয়েছে মুখ্যসচিবের তরফে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন