ফের রাজ্যপালের ক্ষমতা ছাঁটাইয়ের পথে পশ্চিমবঙ্গ, শুক্রবার বিল আসছে বিধানসভায়

0

কলকাতা: জমি সংক্রান্ত বিবাদে সমাধানের ক্ষেত্রে বড়ো ভূমিকা পালন করে যে ট্রাইবুনাল, সেই ওয়েস্ট বেঙ্গল ল্যান্ড রিফর্মস অ্যান্ড টেন্যান্সি ট্রাইবুনালেও রাজ্যপালের ক্ষমতা ছাঁটাইয়ের পথে রাজ্য সরকার। শুক্রবার এই সংক্রান্ত সংশোধনী বিল আসবে বিধানসভায়।

ট্রাইবুনালগুলির কাজকর্ম স্বাভাবিক রাখতে চায় নবান্ন। তাই এ বার সেই ট্রাইবুনালের নিয়োগ নিজেদের হাতে নিতে চায় সরকার। আর আবারও এমনটা হলে রাজভবনের সঙ্গে নবান্নের সঙ্ঘাত অনিবার্য হবে বলেই মনে করছেন এ রাজ্যের রাজনীতির কারবারিরা।

এখনও এই ট্রাইবুনালের নিয়োগের দায়িত্ব রয়েছে রাজ্যপালের হাতেই। কিন্তু আইনে পরিবর্তন ঘটিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা করে রাজ্য সরকার এই ট্রাইবুনালের চেয়ারম্যান ও জুডিশিয়াল সদস্য নিয়োগ করতে চায়। সেই কারণেই বিধানসভা অধিবেশনের একেবারে শেষ দিনের অধিবেশনে সংশোধনী বিলটি আনা হচ্ছে।

চলতি বাদল অধিবেশনেই সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলির আচার্য পদে রাজ্যপালের বদলে মুখ্যমন্ত্রীকে বসাতে একাধিক বিল পাশ হয়েছে। সঙ্গে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলির ভিজিটর পদ থেকে রাজ্যপালকে সরিয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে বসানোর বিলও এই অধিবেশনেই পাশ করিয়েছে রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার আবার আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য পদ থেকে রাজ্যপালকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়োগের বিলটি পাশ হয়েছে।

তবে বিলগুলো পাশ করাতে হলে সেই রাজ্যপালেরই সই দরকার। তিনি আদৌ বিলগুলি সই করবেন কি না, সেই প্রশ্ন থেকেই যায়।

আরও পড়তে পারেন:

উপনির্বাচনে গণ্ডগোল, ত্রিপুরার উপমুখ্যমন্ত্রী বললেন, “শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয় নাকি!”

মহারাষ্ট্রে বিসর্জনের বাজনা, শিন্ডেকে নেতা নির্বাচিত করে চিঠি ৩৭ বিধায়কের

দ্রৌপদী মুর্মুকে প্রার্থী করে বিরোধী শিবিরে জোরদার হানা বিজেপি-র, আরও বেশি ক্রস ভোটিংয়ের সম্ভাবনা

‘মহারাষ্ট্রের বিদ্রোহী বিধায়কদের বাংলায় পাঠান, আমরা যত্ন নিতে জানি’, কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

রাজনীতিতে টিকে থাকার মরিয়া লড়াই, তৃণমূল না নিলে আপ-এ যোগ দেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ সিপিএমের প্রাক্তন সাংসদের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন