Singur
ফাইল ছবি

কলকাতা: শেষ এক দশকের রাজ্য-রাজনীতিতে বহুচর্চিত সিঙ্গুরে স্মারক বসাতে চলেছে রাজ্য প্রশাসন। হুগলিতে প্রশাসনিক বৈঠকে গিয়ে এর আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই স্মারক স্থাপনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। সেই মোতাবেক বুধবার জানা গিয়েছে, রাজ্যের পূর্ত দফতরের অধীনে ওই স্মারক নির্মাণের টেন্ডার প্রকাশ খুব শীঘ্রই হতে চলেছে।

বিগত বামফ্রন্ট সরকারের শেষ পর্বে সিঙ্গুরে টাটা মোটর্সের ন্যানো গাড়ি তৈরির কারখানা নির্মাণ নিয়ে আন্দোলনে তোলপাড় হয়ে ওঠে সিঙ্গুর। প্রথমে স্থানীয় কয়েকটি সংগঠনের ব্যানারে জমি দিতে অনিচ্ছুক কৃষকের আন্দোলন দানা বাঁধলেও পরবর্তীতে সেই আন্দোলনের রাশ ধরেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর নেতৃত্বে সিঙ্গুরের জমি আন্দোলন পরবর্তিতে পরিচিত পায় গোটা দেশ জুড়ে। এমনকী বিদেশি সংবাদ মাধ্যমেও গুরুত্ব সহকারে উঠে আসে মমতার সিঙ্গুর আন্দোলনের বৃত্তান্ত।

Singur
ফাইল ছবি

মমতা সিঙ্গুরের কৃষকদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তাঁর দল রাজ্যের ক্ষমতায় এলে তিনি অনিচ্ছুকদের জমি ফিরিয়ে দেবেন। টাটা গোষ্ঠী প্রকল্প গুটিয়ে সিঙ্গুর থেকে চলে যাওয়ার পরও জমির অধিকার নিয়ে দীর্ঘ মামলা-মোকদ্দমা চলার পর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী মমতা জমি ফিরিয়ে দেন সম্প্রতি।

Tata Nano
ফাইল ছবি

পূর্ত দফতর সূত্রে খবর, ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ওই স্মারক নির্মাণ করা হবে। এক একর জমির উপর গড়ে তোলা ওই স্মারক নির্মাণের জন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে টেন্ডার ডাকার পর থেকে ৩০০ দিন। যেটির উচ্চতা হবে ৪০ ফুট।

Tata Nano
ফাইল ছবি

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মতো সিঙ্গুর স্মারকের জন্য তিনটি নকশা জমা পড়েছিল বলে জানা যায়। সেগুলির মধ্যে থেকে তাঁর নির্বাচিত একটি পূর্ত দফতর গড়ে তুলবে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ের পাশে। সেখানে স্মারকের পাশাপাশি একটি উদ্যানও নির্মাণে করবে পূর্ত দফতর।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here