জাতীয় গড়ের থেকে বেশি, জনসংখ্যার ২১ শতাংশের টিকাকরণ করে ফেলল পশ্চিমবঙ্গ

    আরও পড়ুন

    খবরঅনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এখন পুরোপুরি কমে যাওয়ার পথে। পরিস্থিতি যা তাতে আগামী দিনে সংক্রমণ আরও কমবে বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এখনও আমরা পুরোপুরি সুরক্ষিত নই। কারণ তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। যদিও সেই তৃতীয় ঢেউ কবে আসবে সে ব্যাপারে নানা মুনির নানা মত।

    কিন্তু করোনা থেকে ভবিষ্যতে বাঁচতে এবং তাকে নির্মূল করতে টিকাকরণই যে একমাত্র পথ সেটা একবাক্যে মেনে নিচ্ছেন সবাই। গত কয়েক দিন ধরে পশ্চিমবঙ্গে জোর কদমে কোভিডরোধী টিকাকরণ চলছে। গত দু’দিন পর পর রাজ্যে তিন লক্ষ মানুষের টিকাকরণ হয়ে গিয়েছে।

    Loading videos...

    ২১ শতাংশ মানুষ অন্তত একটা ডোজ পেয়েছেন

    কেন্দ্রীয় সরকারের তৈরি কোউইন ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য জানা যাচ্ছে যে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত রাজ্যের ১ কোটি ৯৬ লক্ষ ৬৬ হাজার ৪৭৭ জন মানুষ এই টিকার একটি করে ডোজ অন্তত পেয়ে গিয়েছেন। অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গের ২১.৭৮ শতাংশ বাসিন্দা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। উল্লেখ্য, গোটা দেশে বর্তমানে মোট জনসংখ্যার ১৮.১০ শতাংশ টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন।

    - Advertisement -

    এর মধ্যে টিকার দু’টো ডোজ নিয়েছেন ৪৪ লক্ষ ১৬ হাজার ১৯৭ জন। অর্থাৎ রাজ্যের মোট বাসিন্দার ৫.৪৫ শতাংশের সম্পূর্ণ টিকাকরণ হয়ে গিয়েছে।

    গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে ৩ লক্ষ ১ হাজার ১৭৯ জনের টিকাকরণ হয়েছে। সোমবার রাজ্যের ৩ লক্ষ ৩৪ হাজার ৮০৫ জনের টিকাকরণ করেছিল রাজ্য। এখনও পর্যন্ত সোমবারই দৈনিক সর্বোচ্চ টিকাকরণ করার রেকর্ড করেছে রাজ্য।

    উল্লেখ্য, কোভিশিল্ড টিকার ক্ষেত্রে ব্যবধানটা বেড়ে যাওয়ার ফলেই দ্বিতীয় ডোজের টিকাকরণ তুলনামূলক ভাবে কম হচ্ছে রাজ্যে। সেটা অবশ্য পুরো ভারতেরই চিত্র। তবে ১ এপ্রিল থেকে যাঁরা টিকা প্রথম নেওয়া শুরু করেছিলেন, তাঁদের দ্বিতীয় ডোজের সময় শুরু হচ্ছে আগামী ২-১ দিনের মধ্যেই। ফলে এটা আশা করাই যায় যে আগামী দিনে রাজ্যের টিকাকরণ আরও গতিপ্রাপ্ত হবে।

    আরও পড়তে পারেন ভোরের ঝড়বৃষ্টির পর অবশেষে রোদ ঝলমলে সকাল দেখল কলকাতা

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর