Connect with us

পশ্চিম মেদিনীপুর

খড়্গপুর সদরে দিলীপ ঘোষ নন, বিজেপির প্রার্থী হচ্ছেন অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায়

বাঁকুড়ার বড়জোড়া কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হচ্ছেন স্থানীয় রাজনীতিক সুপ্রীতি চট্টোপাধ্যায়।

Published

on

হিরণের বিজেপি-যোগ। ফাইল ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: জল্পনার অবসান! শোনা গিয়েছিল, খড়্গপুর সদরে প্রার্থী করা হতে পারে বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা এই কেন্দ্রের প্রাক্তন বিধায়ক দিলীপ ঘোষকে। তবে বুধবারের বিজেপি জানিয়ে দিল, এ বারের ভোটে ওই কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন টলিউড অভিনেতা হিরণ চট্টোপাধ্যায় (Hiran Chatterjee)।

আগামী ১ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় ভোট হবে খড়্গপুর সদরে। শুক্রবারই মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। কিন্তু প্রথম ও দ্বিতীয় দফার দু’টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা স্থগিত রেখেছিল বিজেপি। একে একে ৫৮টি আসনের প্রার্থী স্থির হয়ে গেলেও দু’টি আসন নিয়ে জল্পনা চলছিল।

Loading videos...

কেউ বলছিলেন, খড়্গপুর পুরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলর দেবাশিস চৌধুরী ওরফে মুনমুনকে প্রার্থী করা হতে পারে। আবার এমনটাও শোনা যায়, সাংসদ দিলীপকে বিধায়ক হিসাবে জিতিয়ে আনতে এই কেন্দ্রে প্রার্থী করা হতে পারে। তবে এ দিনের ঘোষণায় আপাতত সেই সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটল।

বুধবার বিজেপি জানায়, খড়্গপুর থেকে প্রার্থী হচ্ছেন অভিনেতা হিরণ। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নামখানার সভায় তাঁর হাতে দলের পতাকা তুলে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)।

অন্য দিকে বাঁকুড়ার বড়জোড়া কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হচ্ছেন স্থানীয় রাজনীতিক সুপ্রীতি চট্টোপাধ্যায়।

আরও পড়তে পারেন: মনোনয়ন জমা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বললেন মানুষের সমর্থনেই প্রার্থী হলেন নন্দীগ্রামে

পশ্চিম মেদিনীপুর

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা! খড়্গপুরের কাছে লাইনে কাজের সময় ট্রেনের ধাক্কায় বেঘোরে প্রাণ হারালেন ৩ রেলকর্মী

কী ভাবে ঘটল এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা?

Published

on

রেল লাইন কাজ করার সময় ট্রেনের ধাক্কায় মৃত তিন কর্মী, আহত এক। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পশ্চিম মেদিনীপুরে খড়্গপুরে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় বেঘোরে প্রাণ গেল তিন রেলকর্মীর। দুঁয়া এবং বালিচক স্টেশনের মাঝে লাইনের উপর শনিবার সকালে কাজ করছিলেন গ্যাংম্যানরা। সেই সময় তাঁদের ধাক্কা মারে হাওড়া থেকে সেকেন্দরাবাদগামী বিশেষ এক্সপ্রেস ট্রেন।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার সকাল ১০টা নাগাদ মাঝের লাইন দিয়ে বিশেষ ট্রেনটি খড়্গপুরের দিকে যাচ্ছিল। সে সময় লাইন মেরামতের রাজ করছিলেন গ্যাংম্যানরা। আচমকা ট্রেন ঢুকে পড়ায় তাঁরা আর সরে দাঁড়ানোর সুযোগ পাননি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিন জনের, আহত হয়েছেন আরও এক জন। আহত ওই কর্মীকে খড়্গপুর রেল হাসপতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন।

Loading videos...

পুরো ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়েছে রেল। খড়গপুর ডিভিশনাল ম্যানেজার মনোরঞ্জন প্রধান সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেন, “আহতের সঙ্গে কথা বলতে পারিনি। ঠিক কী ঘটেছে রেল তদন্ত করে দেখবে”।

খড়্গপুরের ডিআরএম অফিস থেকে আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে যান। অন্যদিকে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ বলেছেন, “তিন জন গ্যাংম্যানের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। খুব দুঃখজনক ঘটনা। তদন্ত হবে। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে”।

জানা গিয়েছে, যে লাইনে কাজ চলছে, সেখানে কী করে এক্সপ্রেস ট্রেন ঢুকে পড়ল, তা নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছএ। কার গাফিলতিতে, কী ভাবে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল, তা নিয়েই তদন্ত করছে রেল।

রেল সূত্রে খবর, নিহত রেলকর্মীদের নাম বাপি নায়েক, মানিক মণ্ডল এবং নৃপেণ পাল। আহত রেলকর্মীর নাম কিসান বেসরা। বাপির বাড়ি খড়্গপুর শহরের বুলবুল চটিতে। নৃপেন শহরের কৌশল্যার বাসিন্দা। মানিকের বাড়ি রাধামোহনপুর এবং কিসানের বাড়ি কোলাঘাটে।

আরও পড়তে পারেন: SSKM হাসপাতাল চত্বরে গুলিবদ্ধ কলকাতা পুলিশের এসআই, আত্মহত্যার চেষ্টা?

Continue Reading

পশ্চিম মেদিনীপুর

Bengal Polls 2021: ভোটের আগের রাতে উত্তপ্ত কেশপুর, খুন তৃণমূলকর্মী

বুধবার রাত ১১টা নাগাদ কেশপুর ব্লকের ৪ নম্বর অঞ্চলের অন্তর্গত দাদপুর গ্রামের হরিহর চক বুথ এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দ্বিতীয় দফার ভোটের আগে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্য। পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুরে তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ। এই ঘটনায় বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে তৃণমূল। তবে বিজেপি নেতৃত্ব এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

বুধবার রাত ১১টা নাগাদ কেশপুর ব্লকের ৪ নম্বর অঞ্চলের অন্তর্গত দাদপুর গ্রামের হরিহর চক বুথ এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। নিহত ব্যক্তির নাম উত্তম দলুই। চল্লিশোর্ধ্ব উত্তম তৃণমূলের বুথ সাধারণ সম্পাদক ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁকে ছুরি দিয়ে কোপানো হয় বলে অভিযোগ।

Loading videos...

অভিযোগ, বুধবার রাতে বাড়িতেই ভাত খেতে বসেছিলেন উত্তম। সেই সময় বাড়িতে ঢুকে এসে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতী। নিহতের পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, টেনে হিঁচড়ে উত্তমকে ঘর থেকে বার করে নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। বাড়ির বাইরে একটি সাঁকোর কাছে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করে। তার পর পেটে ছুরি বসিয়ে দেয়।

তাঁদের অভিযোগ, বাড়ির ৫০ মিটারের মধ্যে একাধিক বার ছুরি দিয়ে কোপানো হয় উত্তমকে। তার পর তাঁর পেটে আস্ত ছুরি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। এত জোরে আঘাত করা হয় যে, ছুরির ফলা পেটে ঢুকে গেলেও, হাতলটি বাইরে থেকে যায়।

আশ্রিত প্রায় ৩০-৩৫ জন দুষ্কৃতী মিলে হামলা চালায় বলে অভিযোগ উত্তমের পরিবারের। তাঁরা জানিয়েছেন, হামলার পর গুরুতর জখম অবস্থায় মেদিনীপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় উত্তমকে। কিন্তু সেখানে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।

এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গোটা ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন ।

রাজ্যে দ্বিতীয় দফার ভোটের সব খবর জানতে ক্লিক করুন এখানে

Continue Reading

পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন খেলা! মঞ্চ থেকে ফুটবল ছুড়ে বিজেপিকে ‘বোল্ড আউট’ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এক ধরনের নতুন ‘খেলা’য় বিজেপিকে ‘বোল্ড আউট’ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ে শনিবার এক ধরনের নতুন খেলা খেললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ দিনই চলছে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ। নারায়ণগড়ের দলীয় সভায় অংশ নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানান মমতা। পাশাপাশি খেলা হবে স্লোগান আরও জোরালো করতে নতুন এক খেলা খেলতে দেখা গেল তাঁকে।

Loading videos...

পাশে রাখা একটা বল হাতে তুলে নিয়ে মমতা বলেন, “একটা ছেলে এই বলটা নিয়ে এসেছে। আমি তো বসে খেলতে পারব না। এটা একটা প্লাস্টিকের বল, ও যেহেতু নিয়ে এসেছে, তাই খেলা হবে? আরে মেয়েরা তো হাতা-খুন্তি নিয়ে খেলবে, হা-ডু-ডু, কবাডি খেলবে। ছেলেরা ফুটবল খেলবে। ব্যাটিং খেলবে। খেলা হবে, বিজেপিকে মাঠের থেকে বোল্ড আউট করে দেওয়া হবে”।

এর পর দর্শকাসন থেকে এক মহিলাকে ডেকে নেন মমতা। জেনে নেন তিনি বল ‘খেলতে’ পারবেন কি না। প্লাস্টিকের একটি ফুটবল ওই মহিলার দিকে মঞ্চ থেকেই ছুড়ে দেন মমতা।

মহিলা সেই বল লুফে নিতেই মমতা চিৎকার করে উঠলেন, ‘‘বোল্ড আউট, বিজেপি বোল্ড আউট। দেখলেন তো যেটা বলি সেটাই করি। ওই এক পায়ে এমন শট দেব না, বিজেপি তোমাকে কান মুলে রাজনৈতিক ভাবে মাঠের বাইরে বের করে দেব’’।

তিনি আরও বলেন, “আমিও ট্রেডমিলে দু’ঘণ্টা হাঁটি। এখন বন্ধ আছে, পায়ের জন্য। আমি চার ঘণ্টা দিনে হাঁটি। অত সস্তা নয়। পেরে ওঠা মুশকিল। দেখলেন তো, পা বাদ দিয়ে হাতের জোর দেখালাম”।

খেলার সেই মুহূর্ত দেখুন ভিডিয়োয়-ফুটবলে বোল্ড আউট ‘বিজেপি’!

আরও পড়তে পারেন: শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌম্যেন্দুর গাড়ি ভাঙচুর, নিজেদের গড়েই কী ভাবে আক্রান্ত?

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ3 hours ago

Bangladesh Covid Situation: স্বাস্থ্যবিধি না মেনে বেপরোয়া চলাচল সুইসাইডের শামিল, মনে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ3 hours ago

Bangladesh-China relation: বিরোধী জোটে যুক্ত হলে সম্পর্কের অবনতি হবে, বাংলাদেশকে হুঁশিয়ারি চিনের

Coronavirus west bengal
রাজ্য7 hours ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের সংক্রমণচিত্রে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, সুস্থতার হারে বৃদ্ধি, ৮ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

দেশ8 hours ago

Coronavirus Second Wave: টিকা নেওয়ার পরেও কি কোভিড হতে পারে? ব্যাখ্যা দিল সরকার

রাজ্য10 hours ago

Coronavirus Second Wave: সংসদের বিশেষ অধিবেশন ডাকতে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিলেন অধীররঞ্জন চৌধুরী

দেশ10 hours ago

CWC Meet: “দলকে নতুন শৃঙ্খলায় সঙ্ঘবদ্ধ করতে হবে”, ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বললেন সনিয়া গান্ধী

প্রোনিং
শরীরস্বাস্থ্য10 hours ago

বাড়িতে কোভিড রোগীর হঠাৎ শ্বাসকষ্ট হলে কেন প্রোনিং করাবেন?

রাজ্য10 hours ago

‘গঠনমূলক কাজে সহযোগিতা করব সরকারকে’, বিরোধী দলনেতা হয়েই বললেন শুভেন্দু অধিকারী

ক্রিকেট3 days ago

IPL 2021: বাকি ম্যাচগুলি আয়োজন করতে চেয়ে বিসিসিআইকে আবেদন জানাল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: রাজ্যের ১৫ জেলায় মৃত্যুহার ১ শতাংশের কম

দেশ3 days ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণ কিছুটা কমলেও মৃতের সংখ্যায় রেকর্ড, তবুও মৃত্যুহার নিম্নমুখী

দেশ2 days ago

Covid Crisis: জলে গুলে খেতে হবে, করোনারোধী ওষুধে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: সংক্রমণের হার ফের ৩০ শতাংশ পার, বাড়ল মৃতের সংখ্যাও, তবে কলকাতা-সহ ৯ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

রাজ্য1 day ago

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃতীয় মন্ত্রীসভায় একাধিক নতুন মুখ

দেশ1 day ago

ভ্যাকসিন এবং কোভিডের চিকিৎসা সরঞ্জামে ট্যাক্স কেন? মমতার চিঠির পর ১৬টা টুইট কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর

রাজ্য1 day ago

Bengal Corona Update: নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় একই, রাজ্যে বাড়ল সুস্থতা

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে