প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইনডেস্ক: এ বার পশ্চিম মেদিনীপুরের (Paschim Medinipur) দু’টি গ্রামকেও ‘স্পর্শকাতর’ হিসেবে চিহ্নিত করল রাজ্য। অঘোষিত ভাবে ‘সিল’ করে দিয়ে এই দুই গ্রামে শুরু হয়েছে ‘সম্পূর্ণ লকডাউন।’

দাসপুর (Daspur) এবং দাঁতনে (Dantan) রয়েছে এই গ্রাম। নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকানও বন্ধ রয়েছে। স্থানীয়দের বাড়িতে রাখতে ‘হোম ডেলিভারি’রও বন্দোবস্ত করেছে পুলিশ।

Loading videos...

জেলার পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার জানিয়েছেন, ‘‘দু’টি গ্রামকে সম্পূর্ণ লকডাউনের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। সব দিক খতিয়ে দেখেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছে। গ্রামগুলিতে নজরদারির জন্য ড্রোনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।”

দাসপুরের গ্রামটিতে এক পরিবারের তিন জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। আক্রান্ত তিন জনই বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অন্য দিকে, দাঁতনের গ্রামটির এক বৃদ্ধ করোনা আক্রান্ত হয়ে ওড়িশায় চিকিৎসাধীন। এমনকি তাঁর স্ত্রীয়ের প্রাথমিক রিপোর্টেও করোনা ধরা পড়েছে।

আরও পড়ুন লকডাউনে কাজ হচ্ছে, তথ্য দিয়ে বোঝাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক

প্রশাসনের ওই সূত্র জানাচ্ছে, এ জন্যই সংক্রমণ ঠেকাতে ওই দুই এলাকায় বাড়তি নজরদারির বন্দোবস্ত করা হয়েছে। পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ওই গ্রাম দু’টির সব বাড়িতে হোম  ডেলিভারি চালু করা হয়েছে। তবে পশ্চিম মেদিনীপুরে করোনা নিয়ে বেশি চিন্তার কোনো কারণ নেই বলেও জানিয়ে দিয়েছেন প্রশাসনের আধিকারিকরা।

উল্লেখ্য, রাজ্যের ২৩টা জেলার মধ্যে ১১টা জেলা থেকে করোনারোগীর সন্ধান মিলেছে। এর মধ্যে নদিয়ার আক্রান্তরা অবশ্য সবাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.