দক্ষিণবঙ্গে হঠাৎ নিষ্ক্রিয় বর্ষা, সক্রিয় হবে কবে?

0

ওয়েবডেস্ক: অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করার পর শেষমেশ বর্ষা দক্ষিণবঙ্গে এল ঠিকই, কিন্তু হঠাৎ করে সে নিষ্ক্রিয় হয়ে গিয়েছে। যার ফলে দিনে একবার হালকা বৃষ্টির বেশি কিছুই জুটছে না বর্ষাপ্রত্যাশীদের ভাগ্যে। এই পরিস্থিতিতে মানুষের এখন একটাই প্রশ্ন, স্বাভাবিক ছন্দের বর্ষাকে দেখা যাবে কবে?

উল্লেখ্য, এ বার জুনে যে রকম আচরণ করার কথা ছিল বর্ষার, সে রকমই করছে। বিভিন্ন সংস্থার থেকে জানানো হয়েছিল, এ বার জুনে বর্ষার ঘাটতি চরম আকার ধারণ করতে পারে। সেই দিকেই এগোচ্ছে ব্যাপারটা। ভালো বৃষ্টির অভাবে ঘাটতির পরিমাণ যথেষ্ট আশঙ্কাজনক। এই ঘাটতি মেটাতে গেলে জোর বৃষ্টির দরকার, সেটাই পাওয়া যাচ্ছে না।

কেন এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে?

এ বার বর্ষার ঢোকার মুখেই বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সেই নিম্নচাপ বাংলায় আসার বদলে চলে যায় মধ্য ভারতে। সাধারণত মৌসুমী অক্ষরেখা যে অঞ্চলের ওপরে প্রবাহিত থাকে, সেখানেই বর্ষার স্বাভাবিক বৃষ্টি হয়। ওই নিম্নচাপটি মৌসুমী অক্ষরেখাকে সঙ্গে নিয়ে মধ্য ভারতে চলে গিয়েছিল বলে ক্রমে বৃষ্টির পরিমাণ কমেছে দক্ষিণবঙ্গে।

শুধু বৃষ্টি কমে যাওয়াই নয়, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে আবার ব্যাপক গরম পড়তে পারে। এর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানিয়েছে, এই মুহূর্তে উত্তরবঙ্গের ওপরে একটি ঘূর্ণাবর্ত অবস্থান করছে। যার ফলে ওই অঞ্চলে আগামী ৩ দিন মাত্রাতিরিক্ত বৃষ্টি হওয়ার কথা। ওই ঘূর্ণাবর্তটির প্রভাবে মধ্য এবং উত্তর ভারতের গরম হাওয়া ঢুকে পড়ছে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে। ফলে সেখানে বাড়ছে পারদ।

আরও পড়ুন বিজেপিতে যোগ দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

তবে ৪৮ ঘণ্টা পর থেকে স্বস্তির ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা জানিয়েছেন, কিছু দিনের মধ্যেই ছোটোনাগপুর মালভুমি অঞ্চলে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হতে পারে। সেই ঘূর্ণাবর্তের প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে ধীরে ধীরে সক্রিয় হতে পারে বর্ষা। শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

পাশাপাশি জুলাইয়ের শুরুতে দক্ষিণবঙ্গে বাম্পার বৃষ্টি হতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে। এর নেপথ্যে রয়েছে একটি নিম্নচাপ, যা ১ জুলাই নাগাদ বঙ্গোপসাগরে দানা বাঁধতে পারে। মনে করা হচ্ছে, ওই নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপের রূপ নিয়ে দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়েই এগোবে, ফলে বৃষ্টি আরও বাড়বে এই অঞ্চলে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন