Amit Shah BJP
কলকাতা: রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অথবা নবীন সেনাপতি মুকুল রায়ের উপর ততটা ভরসা রাখতে পারছেন না বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। গুজরাত এবং হিমাচলপ্রদেশের ফলাফল ঘোষণার পরই বাংলাকে পাথির চোখ করে এগোতে চাইছেন তিনি। ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের আগেই রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সেমি ফাইনাল হিসাবে ধরে নিয়ে রণকৌশল সাজানোর জন্য তিনি রাজ্যে বিজেপির পক্ষে আর অন্য কেউ নন, প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহার সঙ্গে শলাপরামর্শ করছেন। হতে পারেন রাহুলবাবু বর্তমানে দলের জাতীয় সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য কিন্তু একান্ত ভাবে পঞ্চায়েত নির্বাচনের রণনীতি তৈরিতে তিনি কেন, দিলীপ বা মুকুলবাবুকে নিয়ে বসলেন না, তা নিয়ে খোদ ৬, নম্বর মুরলীধর সেন লেনে বিজেপির রাজ্য সদর দফতরে জোর জল্পনা চলেছে।
বিজেপির সূত্রের দাবি, আগামী জানুযারি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বাংলায় আসার নির্ঘণ্ট তৈরি করেছেন অমিত। ওই সময়ে তাঁর আগমনের এক মাত্র কারণ ওই পঞ্চায়েত নির্বাচন। সাম্প্রতিক অতীতে তিনি দলের রাজ্য নেতৃত্বকে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, পঞ্চাযেত নির্বাচনে বিজেপিকে নিজের জায়গা করে নিতে হলে বুথ স্তরে সংগঠন তৈরি করে প্রচারের উদ্যোগ নিতে হবে। ওই সূত্রটি জানাচ্ছে, অমিত এই কাজটি সক্রিয় ভাবে করার নির্দেশ দিয়েছিলেন উচ্চ নেতৃত্বকে। শুধু মাত্র কলকাতায় বসে বা রুটিন মিটিংয়ে বক্তব্য রাখতে জেলায় গিয়ে সেই কাজ সম্ভব নয় বলে তিনি জানিযে দিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর নির্দেশ সঠিক ভাবে পালন করা হচ্ছে না।
ওই সূত্রটি দাবি করছে, নিয়মিত ভাবে জেলার দায়িত্ব পালন না করে বেশ কিছু নেতা জেলায় তাঁদের আজ্ঞাবহ নেতাদের উপরই সেই দায়িত্ব তুলে দিচ্ছেন।কিন্তু কলকাতায় বসে কলকাঠি নাড়তে গিয়ে হিতে বিপরীত হচ্ছে। যে কারণে জেলায় জেলায় দলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বাড়ছে। যা পঞ্চায়েত নির্বাচনে চরম নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলেই মনে করেন অমিত। যে কারণে বাংলার সংগঠনকে ঢেলে সাজাতে তিনি নিজের হাতেই বাড়তি দায়িত্ব তুলে নিতে চাইছেন। কী ভাবে?
বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, আদ্যন্ত শিক্ষার্থীর মতোই মন দিয়ে বাংলা শিখছেন অমিত। আগে সাংসদ বাবুল সু্প্রিয় বা অন্যান্য বাঙালি নেতাদের সঙ্গে দিল্লিতে বাংলায় কথা বলার চেষ্টা করলেও এখন শিখছেন রীতি মতো নিয়ম মেনে। তাঁর মতে, ভারতের অন্যান্য রাজ্যগুলিতে হিন্দিতে বক্তব্য রাখলেও বাংলায় গিয়ে বাংলাতে কথা না বলতে পারলে কর্মী-সমর্থকদের মনের কাছে পৌঁছনো যায় না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here