samir-1

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝাড়গ্রাম: রাজ্যের ১৯টি জেলার ৫৬৮টি বুথে পুনরায় ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন। আগামী বুধবার ওই বুথগুলিতে সকাল ৭টা থেকে ভোটগ্রহণ হবে বলে জানিয়েছে কমিশন। তবে পুনর্নির্বাচনের তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ঝাড়গ্রাম জেলা। নবগঠিত এই জেলার একটি বুথেও ফের ভোট গ্রহণ হবে না বলে জানিয়েছে কমিশন।

গত সোমবার যখন পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র করে সারা রাজ্যেই নিরবচ্ছিন্ন হিংসার ঘটনা ঘটে চলেছে, তখন ঝাড়গ্রামের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ অন্য রকম। এই জেলায় রয়েছে একটি মাত্র মহকুমা এবং ব্লকের সংখ্যা আটটি। ১০টি থানা সম্বলিত এই জেলায় জেলা পরিষদের আসন রয়েছে ১৬টি। মোট গ্রাম পঞ্চায়েত আসনে ৮০৬টি এবং পঞ্চায়েত সমিতির আসন ১৮৭টি । সে দিক থেকে দেখতে গেলে রাজ্যের আর এক নবগঠিত জেলা পশ্চিম বর্ধমানের সম সংখ্যক জেলা পরিষদ আসন রয়েছে ঝাড়গ্রামে। কিন্তু পশ্চিম বর্ধমানেও তো পুনর্নির্বাচন হচ্ছে। তা হলে ঝাড়গ্রামে নয় কেন?

এই প্রশ্নের উত্তর স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল গত সোমবার পঞ্চায়েত ভোটের দিনই। সারা জেলা মুড়ে ফেলা হয়েছিল কঠোর নিরাপত্তায়। ভোটের আগের দিন থেকেই ভিন রাজ্যের পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে স্থানীয় পুলিশ নজরদারি চালানোয় কোনো খামতি চোখে পড়েনি।

আরও পড়ুন: এ বার একটু অন্য ভোট দেখছে ঝাড়গ্রাম, মানছেন নির্বাচন আধিকারিকরাও

তার উপর ছিল জেলার পঞ্চায়েত নির্বাচনে  শাসক ও বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সৌহাদ্যপূর্ণ আচরণ। এই জেলায় তেমন কোনো অনিয়মের অভিযোগ জমা পড়েনি বলে জানিয়েছিলেন নির্বাচনী পর্যবেক্ষক। যে কোনো বুথের সামনেই দেখা গিয়েছে একাধিক রাজনৈতিক দলের বুথ ক্যাম্পের সহাবস্থান। আর বুথের সামনে ভোটারদের লম্বা লাইন। উল্লেখ্যা, পঞ্চায়েত ভোটে এই জেলায় মোট ভোটারের সংখ্যা ৮,১৩,১৫৫ জন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here