কলকাতায় ফের চলন্ত বাসে তরুণীর শ্লীলতাহানি

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: রবিবার সকালে ধুলাগড়-শিয়ালদহ রুটে একটি বেসরকারি বাসে উঠেছিলেন বাঁকসাড়ায় তরুণী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন স্বামী এবং মেয়ে। বাসটি ধর্মতলার ওয়েলিংটনের কাছে পৌঁছাতেই তাঁর শ্লীলতাহানি করে দুই যুবক। এর পরই ১০০ নম্বরে ডায়াল করে অভিযোগ জানানোর মিনিট ১৫ বাদেই শিয়ালদহ থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে মহম্মদ খান নামে এক অভিযুক্তকে। অন্য এক অভিযুক্ত বিপদ বুঝেই পালিয়ে যায়।

তরুণী জানান, ধুলাগড় থেকে বাসে উঠেছিলেন তাঁরা। লেনিন সরণীর কাছে তিনি ১০০ নম্বরে ডায়াল করে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান। সঙ্গে সঙ্গেই ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। লালবাজার কন্ট্রোল রুম থেকে খবর পাঠানো হয় শিয়ালদহ ট্রাফিক গার্ডে।

এর পরই প্রায় এজেসি বোস রোডে এনআরএস হাসপাতালের সামনে বাসটিকে থামায় পুলিশ। সেখানেই হাতেনাতে ধরা পড়ে যায় ওই যুবক। কিন্তু বিপদের আঁচ পেয়েই এক যুবক সেখান থেকে পালিয়ে যায়। তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, ধৃত মহম্মদ খানের বাড়ি হাওড়ার উলুবেড়িয়ায়। সেখানকার কুলগাছিয়া এলাকার বাসিন্দা সে। ঘটনার পর তরুণীর পায়ে ধরে ক্ষমা চাইতেও দেখা যায় ধৃতকে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন