inaugural function
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে (ডান দিক থেকে) শম্ভু সেন, ডঃ রীমা রায়, বঙ্কিম দত্ত , ডঃ রতনকুমার নন্দী, উজ্জ্বল গঙ্গোপাধ্যায়, ডঃ বাঁধন সেনগুপ্ত, শোভনলাল রাহা, জয়শ্রী দে সরকার প্রমুখ। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা: নৈহাটি থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘এইকাল’-এর বয়স হল ১৯। সেই ‘এইকাল’ এ বার পা রাখল ডিজিটাল মিডিয়ার জগতে। আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু করল এইকাল নিউজ পোর্টাল। সোমবার বাংলা নববর্ষের পুণ্য তিথিতে নৈহাটির সমরেশ বসু সভাকক্ষে এক অনুষ্ঠানে এই নিউজ পোর্টালের উদ্বোধন করা হয়। এই উপলক্ষ্যে সাংবাদিকতার দু’টি দিক নিয়ে এক আলোচনাচক্রেরও ব্যবস্থা করা হয়।

আরও পড়ুন পর পর তিন বছর জেআইএস গ্রুপের দু’টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এনআইআরএফ র‍্যাঙ্কিং

এ দিনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট নজরুল গবেষক ডঃ বাঁধন সেনগুপ্ত, বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদের সম্পাদক ডঃ রতনকুমার নন্দী, আনন্দবাজার পত্রিকার প্রাক্তন ডেপুটি নিউজ এডিটর তথা খবর অনলাইন ডট কমের মুখ্য সম্পাদক ক্যালকাটা জার্নালিস্টস ক্লাবের কর্মসমিতির সদস্য শম্ভু সেন,
আরবিসি কলেজের জার্নালিজম ও মাস কমিউনিকেশন-এর বিভাগীয় প্রধান ডঃ রীমা রায়, আরবিসি মর্নিং কলেজের জার্নালিজম ও মাস কমিউনিকেশন-এর বিভাগীয় প্রধান উজ্জ্বল গঙ্গোপাধ্যায়, মানবাধিকার ও বিজ্ঞানকর্মী শিক্ষক বঙ্কিম দত্ত এবং এইকাল-এর সম্পাদক শোভনলাল রাহা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে ডিজিটাল সংবাদ জগতে এইকাল-এর পদার্পণকে অভিনন্দন জানান বিধানসভার পরিষদীয় সচিব তথা নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিক, নৈহাটির পুরপ্রধান অশোক চট্টোপাধ্যায় ও নৈহাটির পুরপ্রধানপর্ষদ সদস্য সুপ্রবীর চৌধুরী।

এ বছরই প্রথম ‘এইকাল’-এর তরফ থেকে চালু করা হল ‘এইকাল ঈশ্বরগুপ্ত স্মারক সম্মান’। প্রথম বছরের স্মারক সম্মানটি এ দিন দেওয়া হয় সাংবাদিক শম্ভু সেনকে। স্মারক তুলে দেন বিধায়ক পার্থ ভৌমিক ও এইকাল-এর সম্পাদক শিক্ষক শোভনলাল রাহা।

এইকাল নিউজ পোর্টালের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে এ দিন এক আলোচনাচক্রের ব্যবস্থা করা হয়। আলোচনাচক্রের বিষয়বস্তু ছিল সংবাদ জগতে ডিজিটাল মিডিয়া ও তার সম্ভাবনা এবং আঞ্চলিক সংবাদপত্র ও তার গুরুত্ব। আলোচনাচক্রে সাংবাদিকতার পড়ুয়াদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জয়শ্রী দে সরকার ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here