lock-up
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাটের বড়িশা রেলকলোনিতে জোর চাঞ্চল্য ছড়াল পরকীয়ার জেরে। বছর তেত্রিশের এক মহিলার দাবি, তাঁর স্বামীর এক মাসতুতো ভাই তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করেন। কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা ওই মহিলা বিয়ের কথা জানালেই অভিযুক্ত বেঁকে বসে।

জানা গিয়েছে, প্রায় ১০ বছর আগে পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরার বাসিন্দা সূর্যকান্ত পড়িয়ার সঙ্গে বিয়ে হয় ওই মহিলার। তাঁদের একটি বছর ছয়েকের সন্তান রয়েছে। কয়েক মাস আগে থেকেই  সূর্যকান্তের এক মাসতুতো ভাই সঞ্জীব সাউয়ের সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ওই মহিলা। এর পর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে শুরু হয় দম্পতির মধ্যে বাক-বিতণ্ডা। মহিলা বাপের বাড়ি চলে যান। সেখানেই না কি নিয়মিত যাতায়াত ছিল সঞ্জীবের।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সঞ্জীব ডিএলএড পাশ করে এখন প্রাথমিকে শিক্ষকতার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে৷ মহিলার অভিযোগ, সঞ্জীব তাঁকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন সহবাস করেছেন। যার জেরে তিনি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

আরও পড়ুন: ট্রেনে ওঠার পরেও কনফার্ম হতে পারে ওয়েটিং লিস্টের টিকিট

এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই উত্তেজিত জনতা ওই যুবককে পাকড়াও করে। খবর যায় কোলাঘাট বিট হাউস থানায়। পুলিশ  এসে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পাশাপাশি পাইকপাড়ি ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে মহিলার শারীরিক পরীক্ষার জন্য  পাঠায় পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here