নয়াদিল্লি : ২০১৮ সালের ৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে দেশের সমস্ত মোবাইল নম্বরকে আধার নম্বরের সঙ্গে যুক্ত করতে চলেছে টেলিযোগাযোগ বিভাগ। এই বিষয়ে নোটিস জারি করেছে বিভাগ। নোটিসে এই ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করা হবে বলে জানানো হয়েছে। বলা হয়েছে, ই-কেওয়াইসি ব্যবস্থার সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হবে সব ফোন নম্বরকে। গ্রাহকদের পরিচয় পুনর্যাচাই করার জন্যই এই ব্যবস্থা করা হবে। এই নির্দেশ কার্যকর হবে পোস্টপেড আর প্রিপেড সব রকমের গ্রাহকের জন্যই। এমনকি যে নম্বরে শুধু ইন্টারনেট ব্যবহার করা হবে, ইনকামিং বা আউটগোয়িং ফোনের কোনো সুবিধে থাকবে না সেই সব নম্বরও গ্রাহকের অন্য একটি বৈধ নম্বরের সঙ্গে যুক্ত থাকতে হবে।

দেশের সমস্ত মোবাইল গ্রাহকের নম্বর আগামী এক বছরের মধ্যে পুনর্যাচাই করার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। লকেটি ফাউন্ডেশনের করা একটি আবেদনের শুনানির প্রেক্ষিতে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে কেন্দ্রকে এই নির্দেশ দেয় সর্বোচ্চ আদালত। তার জবাবে কেন্দ্র জানায়, দেশের সমস্ত ফোন নম্বরকে আধার নম্বরের সঙ্গে যুক্ত করা হবে।

যদিও সুপ্রিম কোর্ট আগেই জানিয়েছে, আধার কার্ড বাধ্যতামূলক নয়। এটা ঐচ্ছিক। কিন্তু ইতিমধ্যেই কেন্দ্র বেশ কিছু ক্ষেত্রে আধারকে বাধ্যতামূলক করেছে। চলতি সপ্তাহে বুধবার লোকসভায় ‘আর্থিক বিল ২০১৭’ পাশ করে জুলাই মাসে আয়কর জমা করার ক্ষেত্রে আধার নম্বরকে বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। এ ছাড়াও ১২টা সমাজসেবামূলক প্রকল্পে আধারকে বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। স্কুলের মিডডে মিল পাওয়ার ক্ষেত্রেও আধারকে আবশ্যিক করার পর বিতর্ক আর প্রতিবাদের ঝড় ওঠায় আধার ছাড়াও পরিচয়ের যে কোনো প্রমাণপত্রকেই গ্রহণযোগ্য করা হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত দেশের ১১০ কোটি মানুষের কাছে আধার কার্ড আছে বলে সরকারের দাবি। 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন