ভোপাল: অন্য ধর্ম থেকে ‘ঘর ওয়াপসি’ করিয়ে কোনো ব্যক্তিকে হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত করিয়ে নেওয়া বিশ্ব হিন্দু পরিষদের যতটা পছন্দের, ঠিক ততটাই অপছন্দের কারও হিন্দু ধর্ম থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে যাওয়া। ধর্মান্তরিত হওয়ার ‘অভিযোগ’-এ তাদের বিয়েতে বাধা দিতে গিয়ে সম্পূর্ণ ‘সেম সাইড’ করে বসল ভিএইচপি। চেষ্টা করল বাগদান-পর্ব বানচালের। পরে অবশ্য জানা গেল পাত্র-পাত্রী দু’জনেই হিন্দুই রয়েছেন এবং হিন্দু মতেই তাঁদের বাগদান-পর্ব মিটেছে।

পাত্রের নাম বিশাল মিত্র, পাত্রী রিতু দুবে। তবে হিন্দু ধর্ম পরিত্যাগ করার খবর কী ভাবে ছড়াল?

বছর তিনেক আগে স্থানীয় একটি গির্জার অনুষ্ঠানে গিটার বাজিয়েছিলেন বিশাল। সুতরাং তিনি খ্রিস্ট হয়েছেন, এমন ধারণা হয় ভিএইচপির। অন্য দিকে বিশালের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর হিন্দু দেবদেবীদের পুজো করা নাকি বন্ধ করে দিয়েছেন রিতু। সুতরাং ভিএইচপির মতে রিতুও ক্রমশ খ্রিস্ট ধর্মে পরিবর্তিত হয়েছেন। এর থেকেই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। দু’জনের বাগদান অনুষ্ঠান ভেস্তে দেওয়ার চেষ্টা করে ভিএইচপি।

ভিএইচপি নেতা দেবেন্দ্র রাওয়াতের মতে বিশাল আদতে খ্রিস্ট ধর্মে বিশ্বাসী, এই মর্মে হলফনামা দিয়েছেন রিতুর মা। সত্য উদঘাটনের জন্য তদন্তেরও দাবি করেন তিনি। পরে অবশ্য হিন্দু মতেই তাঁদের বাগদান-পর্ব মিটে যাওয়ায় নিজেদের নৈতিক জয় বলেই ঢোক গিলেছেন রাওয়াত।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here