BJP

কলকাতা: পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন পেশ করতে গিয়ে যাঁরা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের নিয়ে দিল্লি যাওয়ার পরিকল্পনা করল রাজ্য বিজেপি। মঙ্গলবার দলীয় বৈঠকে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

বিজেপি প্রথম থেকেই অভিযোগ তুলে আসছে, তাদের নেতা-কর্মীরা মনোনয়ন জমা করাকে কেন্দ্র করে শাসক দলের মদতপুষ্ট দুষ্কৃতীদের হাতে বেধড়ক মার খেয়েছেন। আবার উল্টো দিকে তারাও যে তৃণমূলের বাহিনীকে ঠেকাতে যথেষ্ট সংঘর্ষের রাস্তায় গিয়েছে, সে কথাও প্রকাশ্যে বলেছেন রাজ্য সম্পাদক দিলীপ ঘোষ। তবুও রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনকে জাতীয় রাজনীতির আঙিনায় তুলে ধরতে তিনি বেশ কয়েক জন বাছাই করা ‘মার খাওয়া’ নেতা-কর্মীকে দিল্লিতে নিয়ে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দরবার করতে চান।

জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি অথবা গ্রামপঞ্চায়েতে প্রায় ৯০ হাজারের মতো প্রার্থী মনোনয়ন জমা করতে পারলেও বিজেপির মনে এখনও ক্ষোভ রয়ে গিয়েছে। সন্ত্রাস না হলে যে তাঁরা আরও বেশি মনোনয়ন জমা করতে পারতেন, সে কথা জানিয়েছেন দিলীপবাবু। ফলে মনোনয়ন জমা করতে ব্যর্থ এমন কিছু কর্মীকেও দিল্লি নিয়ে যাওয়া হবে বলে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। তবে  প্রধানমন্ত্রীর কাছে নয়, তাঁদের নিয়ে যাওয়া হবে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে। দিলীপবাবুরা সরাসরি রাষ্ট্রপতির কাছে তাঁদের নিয়ে গেলে বিষয়টি যে সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে প্রচারে উঠে আসবে, সে বিষয়ে আশা রয়েছে দিলীবাবুর।

এ বারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে যত বেশি সংখ্যক মনোনয়ন জমা করা সম্ভব হবে, আগামী ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের জন্য দলের ভিত ততই শক্ত হবে বলে মনে করেন বিজেপি নেতৃত্ব। যে কারণে, হাতে সময় থাকতে আরও কিছু মনোনয়ন জমা করার যাবতীয় বন্দোবস্ত সেরে রাখছে গেরুয়া শিবির। গত সোমবার আয়োজিত বৈঠকে এমনটাই বলেন দিলীপবাবু।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন