Mamata Banerjee
প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

ওয়েবডেস্ক: উত্তর দিনাজপুরের দাঁড়িভিট হাইস্কুলে ছাত্রমুত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর বাংলা বন্‌ধের ডাক দিয়েছে রাজ্য বিজেপি। এ খবর শোনা মাত্রই ইতালির মিলানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকদের সামনে বলেন, “আগামী বুধবার বাংলায় কোনো বন্‌ধ হবে না। পুলিশ-প্রশাসন রাজ্যকে সচল রাখতে সব রকমের ব্যবস্থা করবে। কারও কোনো প্ররোচনাতেই পা দেবেন না”।

এ দিন মমতা বলেন, “ইসলামপুরে যে ঘটনা ঘটেছে তার নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি-আরএসএসের ঘৃণ্য রাজনীতি। কেন্দ্রে মোদী সরকারের ব্যর্থতা থেকে সাধারণ মানুষের দৃষ্টি ঘোরাতেই এ ধরনের তাণ্ডব চালাচ্ছে বিজেপি-আরএসএস”।

যদিও একই কথা বলার কারণে আরএসএসের তরফে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ক্ষমাপ্রার্থনা দাবি করা হয়েছে। হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শিক্ষামন্ত্রী নি:শর্ত ক্ষমা না চাইলে তাঁর ইস্তফা দাবি করা হবে। সারা রাজ্য জুড়ে আরএসএস বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে।

যদিও মুখ্যমন্ত্রী একই ভাবে ইসলামপুরকাণ্ডের নেপথ্যে বিজেপি-আরএসএসের ইন্ধনের পুনরাবৃত্তি করে বলেন, বহিরাগতরা স্কুলে ঢুকে ছাত্র-ছাত্রীদের উপর হামলা চালায়। যারা হামলা চালিয়েছিল, তাদের মুখ গামছায় ঢাকা ছিল বলে জানান তিনি। তবে যেই দোষী হোক, কড়া শাস্তি পাবে।


আরও পড়ুন: ইসলামপুর কাণ্ডে বাংলা বন্‌ধের ডাক দিল বিজেপি, পাশে আরএসএস

বিজেপির ডাকা বন্‌ধ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, “বাংলা থেকে বন্‌ধ রাজনীতিকে মানুষ ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে। বিজেপি আবার সেই বন্‌ধকে ফিরিয়ে নিয়ে আসতে চাইছে। এখন বিভিন্ন পরীক্ষা চলছে। আগামী বুধবার রাজ্যকে সচল রাখতে পুলিশ-প্রশাসন বাড়তি উদ্যোগ নেবে”।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন