bjp congress

কলকাতা: রাজ্যে সুষ্ঠু পঞ্চায়েত নির্বাচন চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে বৃহস্পতিবার অভিযোগ দায়ের করেছে প্রদেশ কংগ্রেস। কিন্তু তাদের দায়ের করা ওই মামলা কি আদৌ পর্যালোচনা করবে হাইকোর্ট। না কি তা ‘অপ্রাসঙ্গিক’ হয়ে পড়বে?

পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন পেশ করা নিয়ে সারা রাজ্যেই বিক্ষিপ্ত ভাবে সন্ত্রাসের শিকার শাসক এবং বিরোধী দলগুলি। বিশেষ করে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে মনোনয়ন পেশে বাধা দেওয়ার অভিযোগও চরম আকার ধারণ করেছে। বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সংঘর্ষের ঘটনার খবর আসতে শুরু করেছিল গত মঙ্গলবার থেকেই। স্বাভাবিক ভাবে শাসক তৃণমূলের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতেই হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে মামলা দায়ের করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী।

অন্য দিকে একই অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছে বিজেপি। দলের তরফে বৃহস্পতিবারই ওই আবেদন গৃহীত হয়েছে। জানা গিয়েছে, আগামী শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ আদালতে ওই মামলার শুনানি হবে। স্বাভাবিক ভাবেই সর্বোচ্চ আদালতে গৃহীত হওয়া কোনো মামলার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মামলা নিম্ন আদালতে (সুপ্রিম কোর্টের নিরিখে) সাধারণত চলতে পারে না বলেই আইনজ্ঞদের মত।

তাঁদের মতে, পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন পেশ নিয়ে বিরোধীদের উপর শাসক দল তৃণমূলের আক্রমণ এবং সুষ্ঠু ভোটগ্রহণের স্বার্থে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগ-সহ একাধিক বক্তব্যে মিল রয়েছে কংগ্রেস ও বিজেপির। আবার টানা কর্মবিরতির জেরে হাইকোর্টের কাজে বিঘ্ন ঘটায় কংগ্রেসের আবেদন নিয়ে এমনিতেই সংশয় রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন