anil basu
অনিল বসু। ছবি সৌজন্যে জি নিউজ।

ওয়েবডেস্ক: মারা গেলেন লোকসভা নির্বাচনে রেকর্ড ভোটে জেতা অনিল বসু (৭২)। বেশ কিছু দিন ধরেই তিনি ভুগছিলেন। মূত্রনালিতে সংক্রমণ নিয়ে আগস্টে তিনি একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। কিডনির ডায়ালিসিস চলছিল তাঁর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে হার মানলেন তিনি।

১৯৮৪ সালে আরামবাগ কেন্দ্র থেকে সিপিএম প্রার্থী হিসাবে জিতে সংসদীয় রাজনীতিতে আসেন তিনি। ওই কেন্দ্র থেকেই টানা ছ’ বার জেতেন তিনি। ২০০৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে রেকর্ড ভোটে জেতেন তিনি। তাঁর জয়ের ব্যবধান ছিল ৫,৯২,৫০২। শুধু রাজ্যে নয়, গোটা দেশেই এর আগে বা পরে আর কোনো প্রার্থী এত ভোটে লোকসভা নির্বাচনে কখনও জেতেননি। অনিলবাবুর এই রেকর্ড আজও অক্ষত।

রেকর্ড ভোটে জেতা এই সাংসদকেই উচ্ছৃঙ্খলতা ও দলবিরোধী কাজ করার অভিযোগে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। ২০১২ সালে তাঁর বিরুদ্ধে তিন সদস্যের কমিশন গঠন করে সিপিএম। এই কমিশনের সুপারিশের ভিত্তিতেই অনিলবাবুর সদস্যপদ কেড়ে নিয়ে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। রাজ্য দলের সেই সিদ্ধান্তে সিলমোহর দেয় দলের কেন্দ্রীয় কমিটি। সেই থেকে দলের সঙ্গে আর কোনো যোগ ছিল না অনিলবাবুর।বসু।

তাঁর অসুস্থতার খবর পেয়ে বহিষ্কৃত সাংসদ-কে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়, শ্যামল চক্রবর্তী ও প্রাক্তন সাংসদ সুধাংশু শীল। তাঁর পার্টি সদস্যপদ ফিরিয়ে দেওয়ার কথাও ভাবা হচ্ছিল বলে শোনা যায়। শেষ পর্যন্ত তা আর হল না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন