বিশেষ প্রতিনিধি: বসিরহাট সহ উত্তর ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে যখন অশান্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, ঠিক তখনই বসিরহাটের জন্য বিশেষ উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। বসিরহাট সহ উত্তর ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অঞ্চলের দীর্ঘদিনের অন্যতম প্রধান সমস্যা পানীয় জল। আর্সেনিক ও ফ্লোরাইড যুক্ত নোনা জল নিয়ে অঞ্চলের মানুষের ক্ষোভ দীর্ঘদিনের। এই সমস্যা দূর করতে এলাকার নোনা জলকে প্রযুক্তির সাহায্য মিষ্টি জলে পরিণত করার প্রকল্প গ্রহণ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার।

টাকি ও বসিরহাট অঞ্চলের মানুষকে মিষ্টি জলের স্বাদ দেওয়ার জন্য ইছামতির ধারে মিষ্টি জলের প্রকল্পের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতর এই প্রকল্প রূপায়ণ করবে। ইছামতির জল তুলে এনে সেই জল রাসায়নিক পদ্ধতিতে সম্পূর্ণ বিশুদ্ধ করে সেই মিষ্টি জল পাইপলাইনের মাধ্যমে বসিরহাট ও টাকি অঞ্চলের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই নদী বিশেষজ্ঞ ও ইঞ্জিনিয়াররা প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেছেন। ডিটেইলড প্রোজেক্ট রিপোর্ট বা ডিপিআর তৈরি করা হচ্ছে। প্রাথমিক ভাবে খরচ ধরা হয়েছে ৪০০ কোটি টাকা।

রাজ্যের ৮৩টি ব্লক আর্সেনিক প্রবণ। অধিকাংশ জায়গাতেই নোনা জল। এই প্রকল্প সফল হলে পরবর্তী ক্ষেত্রে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চল এবং আর্সেনিক প্রবণ অন্যান্য এলাকাতেও এই প্রকল্প করবে সরকার।

জনস্বাস্থ্য ও কারিগরি দফতরের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় খবর অনলাইনকে বলেন, “এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবেন এবং সামাজিক জীবনের উন্নতি ঘটবে।“ তিনি আরও বলেন,”খুব দ্রুত যাতে প্রকল্প বাস্তবায়িত করা যায়, তার জন্য সবরকম উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। প্রকল্পের কাজ শেষ হলেই আর্সেনিক ও ফ্লোরাইড মুক্ত মিষ্টি জল এলাকার মানুষ পাবেন”।

প্রথমে বসিরহাটকে কেন্দ্র করে প্রকল্প করা হলেও, পরে উত্তর ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে এই জল সরবরাহ করা হবে। এই ধরনের প্রকল্প রাজ্যে প্রথম। টাকি-বসিরহাটের প্রকল্পকে পাইলট প্রোজেক্ট হিসেবে দেখছে রাজ্য।

রাজ্যের ৮৩টি ব্লক আর্সেনিক প্রবণ। অধিকাংশ জায়গাতেই নোনা জল। এই প্রকল্প সফল হলে পরবর্তী ক্ষেত্রে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চল এবং আর্সেনিক প্রবণ অন্যান্য এলাকাতেও এই প্রকল্প করবে সরকার।

পাশাপাশি নিউটাউনেও এই ধরনের একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। সেখান থেকেও পাইপলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকায় মিষ্টি জল সরবরাহ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন