Mukul Roy and Adhir Chowdhury
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতিপদ থেকে অপসারণের পর থেকেই অধীররঞ্জন চৌধুরীর রাজনৈতিক গতিবিধি নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা। দিল্লি থেকে অধীরবাবুর অপসারণের নির্দেশ আসার দিনই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তাঁকে গেরুয়া শিবিরে স্বাগত জানানোর কথা বলেছিলেন। এ দিন বিজেপির অন্যতম নেতা মুকুল রায়ের মন্তব্যেও উঠে এল জোরালো ইঙ্গিত।

তবে অধীরবাবু বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কি না, সে বিষয়ে খোলসা করে কোনো কিছুই জানাননি মুকুলবাবু। কিন্তু তিনি যে যুক্তিকে সামনে রেখে তা মোটেই ফেলনা নয় বলে মত রাজনীতির কারবারিদের।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের তরফে এ বিষয়ে মুকুলবাবুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “সামনে রয়েছে বেশ কয়েকটি রাজ্যের বিধানসভা ভোট। ওই ভোটে কংগ্রেস যদি ভালো ফল না করতে পারে তা হলে আগামী লোকসভা নির্বাচনেও কংগ্রেসের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে। এ দিকে অধীরবাবু মনেপ্রাণে রাজ্য সরকারের শাসক দলের বিরোধী। তিনি বিভিন্ন সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। ফলে তেমন পরিস্থিতিতে তাঁর সামনে বিজেপি ছাড়া কোনো বিকল্পই থাকবে না”।

যদিও মুকুলবাবুর এহেন মন্তব্যের পর অধীরবাবুর কোনো প্রতিক্রিয়া পেশ করেছেন কি না, তা জানা যায়নি। এর আগেও তাঁকে নিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব এ ধরনের মন্তব্য করলেও তিনি গুজব বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন। কিন্তু একাধিক অনুগামী বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় জল্পনা ক্রমশ ঘণীভূত হয়েই চলেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন