কলকাতা: সক্রিয় মৌসুমী বায়ু এবং ঘূর্ণাবর্তের ফলে প্রবল বৃষ্টি নামল কলকাতায়। শুক্রবার সকালের ঘণ্টা দুয়েকের বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ল কলকাতার বিস্তীর্ণ এলাকা। উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম, জল জমেছে শহরের সব প্রান্তেই। সব থেকে বড়ো কথা, বৃষ্টি হয়েছে গোটা শহর জুড়েই।

গত কয়েক দিন ধরেই বৃষ্টি হচ্ছে কলকাতায়। কিন্তু শহর জুড়ে এক রকম বৃষ্টি কার্যত হয়েইনি। বৃহস্পতিবার যখন দমদমে ৫৫ মিমি বৃষ্টি হয়েছে তখন আলিপুরে হয়েছে মোটে ১৪। কিন্তু শুক্রবার শহরের সব প্রান্তেই সমান ভাবে বৃষ্টি হয়েছে। দুপুর আড়াইটে পর্যন্ত আলিপুরে ৬৭ মিমি বৃষ্টি এবং দমদমে হয়েছে ৪৮ মিমি।

এই বৃষ্টির প্রভাবে কলকাতার বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন হয়ে পড়ে। কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুপুর সাড়ে বারোটা পর্যন্ত হাঁটু-সমান জল ছিল স্ট্র্যান্ড রোড, দমদম আন্ডারপাস, পাতিপুকুর আন্ডারপাস, উলটোডাঙা আন্ডারপাস, এমজি রোড এবং মুক্তারামবাবু স্ট্রিট, চক্রবেড়িয়া রোড, কংগ্রেস এক্সিবিশন রোড, লাউডন স্ট্রিট এবং সুইনহো লেনে। এ ছাড়াও দক্ষিণ এবং উত্তর কলকাতার আরও অনেক রাস্তাতেই গোড়ালি সমান জল দাঁড়িয়েছিল বলে পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

আবহাওয়া দফতরের মতে এই বৃষ্টি বর্ষার স্বাভাবিক বৃষ্টি। এই মুহূর্তে দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে সক্রিয় রয়েছে মৌসুমী অক্ষরেখা। তার ওপর জড়ো হয়েছে বঙ্গোপসাগরের ওপর একটি ঘূর্ণাবর্ত। এই দুইয়ের প্রভাবে প্রবল ভাবে জলীয় বাস্প ঢুকছে দক্ষিণবঙ্গে। তার প্রভাবেই এই বৃষ্টি। হাওয়া অফিসের মতে, এ রকম পরিস্থিতি আগামী কয়েক দিন বজায় থাকবে। এর প্রভাবে গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই চলবে বৃষ্টি।

উত্তরবঙ্গে প্রবল বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। এই মরসুমে এই প্রথমবার উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতিভারী শুধু নয়, চরম অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।

ছবি: রাজীব বসু

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন