asitbabu describing the incident
ঘটনার বর্ণনা করছেন অসিতবাবু। নিজস্ব চিত্র।

কলকাতা: স্প্রে করে সর্বস্ব লুঠপাট করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ৷ ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুর থানা এলাকার সুভাষগ্রামের গান্ধীপাড়া পশ্চিমে৷ এই লুঠপাঠের ফলে খোয়া গিয়েছে প্রায় ৬ লক্ষ টাকার গয়না, নগদ ২৪ হাজার টাকা, একাধিক মোবাইল এবং এটিএম কার্ড ৷

যে বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে তার মালিক অসিত কুমার পুরকাইত পেশায় ফিজিওথেরাপিস্ট৷ তাঁর স্ত্রী ও বড়ো মেয়ে নার্স৷ ঘটনার দিন রাতের বেলায় অসিতবাবু তাঁর ছোটো মেয়ে প্রীতিলতাকে নিয়ে শুয়েছিলেন একটি ঘরে৷ অন্য ঘরে শুয়েছিলেন তাঁর শাশুড়ি শান্তিলতা দে ও বড়ো মেয়ে সন্দীপা পুরকাইত৷ গেটের সামনেই দরজার পাশেই একটি পেরেকের মধ্যে রাখা ছিল বাড়ির চাবি৷ অভিযোগ, লাঠি দিয়ে সেই চাবি ছিনিয়ে দরজা খুলে অবাধে লুঠপাট চালানো হয়৷

আরও পড়ুন ভারত আগে ছিল ঘুমন্ত হাতি, কিন্তু এখন সে জেগেছে এবং দৌড়চ্ছে,’ লালকেল্লা থেকে প্রধানমন্ত্রী

অসিতবাবুর পয়সার ব্যাগে ২০ হাজার টাকা ছিল। সেটা নেওয়ার পাশাপাশি, আলমারির মধ্যে বড়ো মেয়ের বিয়ের জন্য ৬টি সোনার আংটি, ৬ সেট কানের এবং গলার চেন, ৪ গাছা চুড়ি, ৬ সেট নাকছবি, ২টি সোনা বাঁধানো শাঁখা, একটি মঙ্গলসূত্র, রুপোর ৩ জোড়া নূপুর নিয়ে চম্পট দেয় ডাকাতদল৷

ঘটনায় সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ, তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি৷ উদ্ধার করা যায়নি খোয়া যাওয়া জিনিসপত্রও৷ এই ভাবে লুঠপাটের ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা ৷

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন