autum in kolkata
পুজোয় এরকম আকাশের দেখাই মিলবে।

কলকাতা: তড়িঘড়ি রাজ্য থেকে বিদায় নিতে চলেছে বর্ষা। সাধারণত ৮ অক্টোবর পশ্চিমবঙ্গ থেকে বর্ষা বিদায় নেওয়ার কথা। কিন্তু সব কিছু ঠিকঠাক চললে শনিবারের মধ্যেই রাজ্য থেকে পাততাড়ি গুটিয়ে ফেলতে পারে সে। বৃহস্পতিবারের দুপুরের বুলেটিনে এমনই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

সাধারণত কোনো এক জায়গায় যদি অন্তত দিন পাঁচেক উল্লেখযোগ্য বৃষ্টি না হয়, হাওয়ার গতিপথ পালটে যায় এবং সেই সঙ্গে আর্দ্রতার পরিমাণ কমে যায়, তা হলেই সেই অঞ্চল থেকে বর্ষার বিদায় ঘোষণা করে আবহাওয়া দফতর। গত রবিবারের পর থেকে দক্ষিণবঙ্গে একদমই বৃষ্টি নেই, উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টির পরিমাণ কমে গিয়েছে। পাশাপাশি আর্দ্রতা কিছুটা কমে যাওয়ায় এবং উত্তুরে হাওয়া বইতে শুরু করায় ভোরের দিকে কিছুটা ঠান্ডা ভাব আসতে শুরু করেছে। এই সব মাথায় রেখেই দু’দিনের মধ্যে বর্ষা বিদায় ঘোষণা করে দিতে পারে আবহাওয়া দফতর।

বর্ষা বিদায় নেওয়া মানেই ধীরে ধীরে পারদ কমতে শুরু করা, এটা যেমন ঠিক, তেমনই এটাও ঠিক যে এ বার এখনই পারদ কমার কোনো লক্ষ্মণ নেই। বরং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যে মগডালে চেপে রয়েছে, সেটাই বজায় থাকবে। বুধবার কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল সাড়ে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে যা চার ডিগ্রি বেশি। গত দশ বছরে এটিই অক্টোবরে কলকাতার সর্বোচ্চ। শুধু কলকাতাই নয়, দক্ষিণবঙ্গের কার্যত সব জায়গাতেই পারদ ঘোরাফেরা করছে ৩৬ থেকে ৩৭ ডিগ্রির মধ্যে।

আরও পড়ুন নিকাশি ব্যবস্থার উন্নয়নে কলকাতাকে একশো মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিল এডিবি

এই গরম থেকে এখনই কোনো রেহাই নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বরং অন্তত মহালয়া পর্যন্ত এ রকমই থাকবে তাপমাত্রা। ঘোরাফেরা করবে ৩৫-৩৬ ডিগ্রির মধ্যে। তবে মহালয়ার পরে ফের একদফা বৃষ্টিপাতের কবলে দক্ষিণবঙ্গ পড়তে পারে বলে জানিয়েছে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা। পুজোর মধ্যে বৃষ্টির ব্যাপারে এখনও সঠিক পূর্বাভাস দেওয়া না গেলেও পঞ্চমী পর্যন্ত যে বৃষ্টি হবেই সে ব্যাপারে অনেকটাই নিশ্চিত এই সংস্থা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন