অবরোধে আটকে পড়া বাসটি। নিজস্ব চিত্র
ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: বন্‌ধকে মোকাবিলা করতে বাস চালকের ভুমিকায় অবতীর্ণ হল পুলিশ। বুধবার বিজেপির ডাকা বারো ঘন্টার বাংলা বন্‌ধে সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে ও বেসরকারি বাসচালকদের সাহস যোগাতে বাস চালালেন রাইপুর থানার আইসি বিশ্বজিৎ মণ্ডল স্বয়ং। এই অভিনব এই ঘটনার সাক্ষী থাকল বাঁকুড়ার জঙ্গলমহলের মানুষ।

‘পশুপতিনাথ’ নামে একটি বেসরকারি বাস বাঁকুড়ার গোবিন্দনগর বাসস্ট্যাণ্ড থেকে ওডিশার বারিপদার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। বাঁকুড়া-ঝাড়গ্রাম রাজ্য সড়ক ধরে যাত্রীবাহি ওই বাসটি রাইপুরের সবুজ বাজারে পৌঁছালে বিজেপি সমর্থকরা তা আটকে দেন। প্রচন্ড সমস্যার মধ্যে পড়েন ওই বাসে থাকে চল্লিশ জন যাত্রী।

বন্‌ধ সফল করার জন্য বাসের চালককেও বাস থেকে নামতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে বিজেপির দিকে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় আইসি বিশ্বজিৎ মণ্ডলের নেতৃত্বে বিশাল এক পুলিশ বাহিনী। বিশ্বজিৎবাবু বন্‌ধ সমর্থকদের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করেন কিন্ত পুলিশের সঙ্গে তর্কবিতর্ক শুরু হয় বলে পুলিশ সূত্রের খবর। অবশেষে আইসির কাছে যুক্তিতে হার মানতে বাধ্য হন বিজেপি সমর্থকরা। পুলিশের যুক্তি ছিল, “আপনার বনধ ডেকেছেন। তা হলে রাস্তা অবরোধের কর্মসূচি কেন? ওই বাসে থাকা এতো গুলো মানুষ এখন কোথায় যাবেন?”

বাস চলাচ্ছেন বিশ্বজিৎবাবু। নিজস্ব চিত্র।

এই পরিস্থিতিতে পথ অবরোধ তুলতে বাধ্য হয় বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। পুলিশের ভুমিকায় খুশি ওই বাসযাত্রীরা। তবে এত কিছুর পরও দেখা মেলেনি ওই বাসের বাস চালকের। এমতবস্থায় চাবি হাতে বাসে উঠে পড়েন বিশ্বজিৎবাবু মণ্ডল। কিছুটা পথ বাসটি চালিয়ে নিয়ে যান তিনি। পরে চালককে ডেকে তাঁর হাতে চাবি দিয়ে বাসটিকে গন্তব্যে রওনা করিয়ে ফিরে আসেন তিনি। বাসের যাত্রী বছর চল্লিশের সুচিত্রাদেবী বলেন, “বাঁকুড়া থেকে রাইপুর খুব ভালোভাবে আসার পর এখানে আটকে পড়েছিলাম। এখানকার পুলিশের যে ভুমিকা তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়।”

আরও পড়ুন অগ্নিগর্ভ ইসলামপুরে শুভেন্দু অধিকারীর চ্যালেঞ্জ-“দু’-চার দিন পর পর এখানে আসব”

উল্লেখ্য, বিজেপির ডাকা এ দিনের বন্‌ধে জেলার জঙ্গলমহলেই সব থেকে বেশি প্রভাব পড়েছে। রাইপুর এলাকায় অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ। স্থানীয় বিজেপি নেতা দেবাশীষ মাহাতো বলেন, “বাসে থাকা যাত্রীদের কথা ভেবে ও পুলিশের সঙ্গে আলোচনা শেষে বাসটিকে আমরা ছেড়েছি। আমরাও চাইনা সাধারণ মানুষ অসুবিধার মধ্যে পড়ুন।” তাঁদের ডাকা বন্‌ধ একশো শতাংশ সফল বলেই দাবি করেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন