কলকাতা: বেশ কয়েকটি রেস্তোরাঁয় এমন ঘটনা হওয়ার পর এবার মলে। ধুতি পরে থাকায় এক ব্যক্তিকে ঢুকতে বাধা দিল শপিং মল। ঘটনাটি ঘটেছে বেকবাগানের অভিজাত কোয়েস্ট মলে। যে ব্যক্তিকে আটকানো হয়, তিনি চিত্র পরিচালক আশিস অভিকুন্তক।

গোটা ঘটনাটি ফেসবুকে পোস্ট করে জানিয়েছেন অভিনেত্রী দেবলীনা দত্ত(প্রতিবেদনে ব্যবহৃত ছবিটি তাঁর ফেসবুক পোস্ট থেকেই নেওয়া)।

শনিবার আশিস, দেবলীনা ও আরও কয়েকজন ওই শপিং মলে যান। কিন্তু ঢোকার মুখেই আশিসকে বাধা দেন মলের কর্মী। ওই কর্মীর সঙ্গে ‘ইংরাজি’তে বিতর্ক শুরু করেন আশিস। তখন ওয়াকিটকিতে উচ্চপদস্থ আধিকারিককে ঘটনাটি জানান ওই কর্মী। তাঁকে ঘটনাস্থলে আসতে বলেন। তারপর সেখানে আসেন এক মহিলা। তিনি বলেন, ধুতি বা লুঙ্গি পরা অবস্থায় কাউকে তাঁরা ওই মলে ঢুকতে দেন না। পুরো ঘটনাটি ভিডিও রেকর্ডিং করছিলেন অভিনেত্রী দেবলীনা। তাতেও আপত্তি জানান ওই মহিলা। যদিও প্রকাশ্য স্থানে ভিডিও রেকর্ডিং-এ সাধারণ ভাবে ভারতের কোথাও নিষেধাজ্ঞা নেই। পরে অবশ্য আশিসকে ঢুকতে দেওয়া হয় মলে।

ধুতির মতো বাংলা ও ভারতের প্রাচীন, ঐতিহ্যশালী ও শালীন পোশাকে ওই মলটির আপত্তিতে স্বাভাবিক ভাবেই বিস্মিত নাগরিক সমাজ। সোশাল মিডিয়ায় উঠেছে প্রতিবাদের ঝড়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন