representational image
প্রতীকী ছবি।

ওয়েবডেস্ক: সালিশি সভার নিদান অনুযায়ী এক যুবককে হাত পা বেঁধে জ্বালিয়ে দেওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার করা হল তিন জনকে। ধৃতদের মধ্যে রয়েছেন ওই সালিশি সভার প্রধান। অগ্নিদগ্ধ যুবক আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনাটি মালদা জেলার হবিবপুর থানার কেন্দপুকুর গ্রামের।

হবিবপুরের বিডিও শুভজিৎ জানা জানান, পিসি শ্রীমতী হাঁসদা এবং ভাইপো মণ্ডল হাঁসদার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই একটি জমি নিয়ে বিবাদ চলছিল। অভিযোগ, ওই জমি পিসির কাছ থেকে দখলমুক্ত করার জন্য মণ্ডল তাঁকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। গ্রামের মোড়লের কাছে ভাইপোর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানান পিসি। সেই অভিযোগের সুরাহা করতে বুধবার সালিশি সভা ডাকা হয়। সভা মণ্ডলকে দোষী সাব্যস্ত করে। সেখানেই মাতব্বরেরা নিদান দেয় মণ্ডল হাঁসদার হাত-পা বেঁধে জীবন্ত পুড়িয়ে মারা হোক। সেই আদেশ মেনে একদল লোক মণ্ডলকে খুঁটিতে বেঁধে তার গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। অনেক পরে মণ্ডলের বাড়ির লোকজন এসে তাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ঘটনার তদন্ত করছে হবিবপুর থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান বিডিও।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন