child
গুলিবিদ্ধ শিশু। ছবি:ইন্টারনেট থেকে

ওয়েবডেস্ক: পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠন নিয়ে সৃষ্টি হওয়া সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হতে হল এক তিন বছরের শিশুকে। মালদহের মানিকচকের এই মর্মন্তুদ ঘটনা রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে ফের এক বার প্রশ্নচিহ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিল।

সংবাদে প্রকাশ,  মালদার মানিকচকে গ্রাম পঞ্চায়েতে মোট ১৮টি আসনের মধ্যে তৃণমূল ও বিজেপির দখলে ছিল যথাক্রমে ৮ এবং ১০টি করে। এরই মাঝে বোর্ড গঠনের আগে জয়ী বিজেপি প্রার্থী পুতুল মণ্ডল তৃণমূলে যোগ দেন। ফলে দু’দলেরই আসন সংখ্যা দাঁড়ায় ৯-এ। ওই পরিস্থিতিতে টসে জিতে বোর্ড গঠন করে বিজেপি।

অভিযোগ, এর পরই বিজেপির সমর্থকরা অস্ত্র-সহ পুতুলদেবীর বাড়িতে চড়াও হয়। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয়, কেন তিনি বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। এই নিয়ে শুরু হয় বচসা। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে সেখানে গুলি চলে। আচমকা গুলি গিয়ে লাগে পুতুলদেবীর তিন বছরের ছেলের মাথায়।আশঙ্কাজনক অবস্থায় ছোট্ট শিশুটিকে মালদহ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়।


আরও পড়ুন: বাংলাদেশ যা আজ ভাবে, ভারত ভাবে কাল! গ্রেফতারি প্রসঙ্গে তীব্র কটাক্ষ তসলিমার

এই ঘটনায় অভিযোগের তির বিজেপির বিরুদ্ধেই। যদিও বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, এই ঘটনার সঙ্গে তাঁর দল কোনো ভাবেই জড়িত নয়। উল্টে তিনি কাঠগড়ায় তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল কংগ্রেসকেই। এ ব্যাপারে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বকেই দায়ী করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন