Dilip Ghosh

কলকাতা: “বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির সভা বানচাল করতেই ধিক্কার দিবসের ডাক দিয়েছে তৃণমূল”। দলীয় কার্যালয়ে বসে এমনটাই মত প্রকাশ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশি তিনি হুঙ্কার দিয়ে বলেন, “আগামী শনিবার বিজেপি সমর্থকদের আটকানো হলে সংঘাত হবে”।

গত সপ্তাহ থেকেই অসমের নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে প্রতিবাদে নেমেছে এ রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। ইতিমধ্যের দু’দিনের কালা দিবসও পালন করা হয়েছে তাদের উদ্যোগে। এ দিন দলের সাধারণ সম্পাদক পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, কলকাতা বাদ দিয়ে রাজ্যের সর্বত্র ধিক্কার মিছিলের আয়োজন করবে তাঁদের দল। অসমে বাঙালি-সহ অন্যান্য ভাষাবাষীদের নাম বাদ পড়েছে। বাদ পড়া মানুষের নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্তির দাবি নিয়ে সারা রাজ্যে মিছিল সংগঠিত হবে। তিনি বলেন, নাগরিকপঞ্জি থেকে ইচ্ছাকৃত ভাবে বাঙালিদের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। এ ভাবে কাউকে উদ্বাস্তু করে দেওয়া যাবে না।

আরও পড়ুন: পড়তে পারেন: শনিবার অমিত শাহের সভায় বড়োসড়ো রদবদল‍!

পার্থবাবুর এই ঘোষণার পরই সাংবাদিক সম্মেলন করেন দিলীপবাবু। তিনি দাবি করেন, “শনিবার বিজেপির সভা বানচাল করতেই তৃণমূল ওই ধিক্কার দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে রাজ্যের কোথাও বিজেপি সমর্থকদের আটকানো হলে সংঘাত হবে”।

পাশাপাশি দিলীপবাবু বলেন, অমিত শাহের সভা দিয়েই আগামী নির্বাচনে তৃণমূলের পতনের সূচনা হবে। সেই কারণেই ভয় পেয়ে তৃণমূল বিজেপিকে আটাকানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু এ সব করে কোনো লাভ নেই। পঞ্চায়েতেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে, রাজ্যের মানুষ বিজেপিকে চাইছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন