simlapal tube well
কোনো কসরত ছাড়াই পড়ে চলেছে জল। নিজস্ব চিত্র
ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: বাঁকুড়া-ঝাড়গ্রাম রাজ্য সড়কের উপর হেত্যাগোড়া বাসস্ট্যান্ড থেকে সোজা বাঁ দিকের রাস্তা ধরে তিন কিলোমিটার গেলেই সিমলাপালের গোপালনগর গ্রাম। লাল মাটির রাস্তা আর সবুজের সমারোহ। এই গ্রামেই দেখা মিলবে এক আশ্চর্য নলকুপের। কোনো রকম কসরত ছাড়াই দিনের পর দিন এক নাগাড়ে জল পড়ে চলেছে ওই নলকূপটি থেকে।

দশ বছর আগে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের উদ্যোগে খনন করা হয়েছিল এই পানীয় জলের নলকূপটি। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় ওই নলকূপে কোনো রকম যান্ত্রিক বা হস্তচালিত শক্তির প্রয়োগ ছাড়াই গত দশ বছরেরও বেশি সময় ধরে অবিরাম জল পড়ে চলেছে। স্থানীয় গ্রামবাসী ধনঞ্জয় গড়াই, শঙ্কর পাত্ররা বলেন, ওই নলকূপে কোনো রকম পাম্প করার প্রয়োজন হয় না। আপনা থেকেই জল পড়ে। গ্রামের একটা বড়ো অংশের মানুষ এই আশ্চর্য নলকূপের জলের উপর নির্ভরশীল।

আরও পড়ুন কেমন হল শিয়ালদহ স্টেশনের ভার্টিকাল বাগানটি, দেখে নিন

কিন্তু এ ভাবে টানা জল পড়ে যাওয়ার কারণ কী? স্থানীয় দুবরাজপুর সম্মিলনী হাই স্কুলের পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষক জয়ন্ত মাঝি বলেন, সিমলাপাল এলাকার জলস্তর খুব কাছে থাকার জন্য এই ঘটনা ঘটে। কাছাকাছি আরও এই ধরনের নলকূপ আছে যেখানে এই ভাবেই প্রতিনিয়ত জল পড়ে বলে জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন