BJP-president

ওয়েবডেস্ক: বিজেপির ডাকা ১২ ঘণ্টার বন্‌ধে সব থেকে বেশি প্রভাব পড়েছে উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে। মূলত স্থানীয় দাঁড়িভিট হাইস্কুলে শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে গন্ডগোলের কারণেই মৃত্যু হয় দুই প্রাক্তন ছাত্রের। তারই প্রতিবাদে বুধবারের বন্‌ধে ইসলামপুরে একাধিক জায়গায় তাণ্ডব চালানোর অভিযোগে বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতিকে আটক করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

চার দিন আগে বিজেপির ঘোষিত বন্‌ধ রুখতে একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হয় রাজ্য সরকারের তরফে। এ দিন রাজধানী কলকাতার পরিস্থিতি মোটের উপর স্বাভাবিক থাকলেও দুপুরে ব্রেবোর্ন রোডে একটি সরকারি বাসে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনার কথা জানা গিয়েছে। তবে জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্ত ভাবে বন্‌ধ সমর্থকরা সক্রিয় হলেও ইসলামপুর কার্যত অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে সকাল থেকেই।

ইসলামপুরের একাধিক জায়গায় চলে বাস ভাঙচুর। বেশ কয়েকটি বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। পাশাপাশি চলে পুলিশের গাড়িতে হামলা। পথ অবরোধ করতে লাঠি-বাঁশ নিয়ে নেমে পড়েন বিজেপি সমর্থকরা। রাস্তায় জ্বালানো হয় টায়ার। মূলত এই পথ অবরোধ তুলতে গিয়েই বিজেপি সমর্থকদের প্রবল বাধার মুখে পড়তে হয় পুলিশকে। যা কিছুক্ষণের মধ্যেই সংঘর্ষের আকার নেয়।


আরও পড়ুন: কলেজে ঢুকে অধ্যাপক ও পড়ুয়াদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে, আহত ৪

জানা গিয়েছে, একাধিক হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগেই বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি দেবজিত ঘোষকে আটক করে পুলিশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন