ওয়েবডেস্ক: সইফ আলি খান যে হালফিলে কেন এত বিরক্ত হয়ে থাকছেন, ফটোগ্রাফার দেখলেই জ্বলে উঠছেন তেলে বেগুনে, এমনকি তা নিয়ে কেন সবার সামনেই করিনা কাপুর খানের সঙ্গে ঝগড়া শুরু হয়ে যাচ্ছে, তা এত দিনে এসে বেশ টের পাওয়া গেল!

kareena kapoor khan

এর আগে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন নবাব সাহেব, তৈমুর আর পাপারাজ্জি- এই দুই যুগলবন্দি তাঁর পক্ষে চিন্তার কারণ হয়ে উঠেছে! “বিশ্বাস করবেন না, আজকাল ক্যামেরা দেখলেই কেমন যেন চকচক করে ওঠে ওর মুখ, চোখ! তখন ওকে সামলে রাখা দায় হয়ে ওঠে! এতটাই উত্তেজিত হয়ে পড়ে ছেলেটা”, জানিয়েছিলেন সইফ!

kareena kapor khan

এবং শুধু বাবা নয়, বেগমজানও এ ব্যাপারে দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছিলেন সংবাদমাধ্যমের কাছে। এক সাক্ষাকারে জানিয়েছিলেন- “তৈমুর আজকাল ফটোগ্রাফার দেখলে নানা রকম পোজও দেয়। এটা ওর বয়সে স্বাভাবিক নয়! ব্যাপারটা আমায় চিন্তায় ফেলেছে!”

kareena kapoor khan

এ সব যে সময়ের কথা, তখনও কিন্তু খুদেটা হাঁটতে শেখেনি, থাকত মা অথবা বাবা অথবা আয়ার কোলে-কাঁখে। এ বার যখন হাঁটতে শিখল, দেখা দিল বিপদ! কিছু দিন আগেই যেমন মায়ের হাত ছাড়িয়ে পাপারাজ্জিদের দিকে চলে যেতে চাইছিল সে। করিনা কোনো মতে টেনে-হিঁচড়ে ছেলেকে নিয়ে যেতে পেরেছিলেন স্টুডিওর ভিতরে।

kareena kapoor khan

কিন্তু এ বার আর তা সম্ভব হল না। এ বার যখন ছেলে আর তার আয়াকে নিয়ে স্টুডিওর সামনে গাড়ি থেকে নামলেন করিনা এবং পাপারাজ্জিদের ক্যামেরার ফ্ল্যাশ ঝলসে উঠল, তখন তার চেয়েও বেশি আলো দেখা দিল তৈমুরের চোখে। এবং মায়ের হাত ছাড়িয়ে নিয়ে সটান সে দৌড় দিল পাপারাজ্জিদের দিকে।

এটা ঠিক যে, করিনা তাকে সময় মতো ধরে ফেলতে পেরেছেন! স্লাইডশোয়ের এই ভিডিওই তার প্রমাণ যে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে পেরেছেন তিনি। কিন্তু ভবিষ্যতে কী হবে? এখনই যদি এত দস্যি হয়, পরে তো তা হলে খুদেকে সামলানো দায় হবে!

দেখা যাক, এ ব্যাপারে কী করে উঠতে পারে পতৌদিদের পরিবার!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here