ওয়েবডেস্ক: পোশাকি নাম ‘হার্বিন ইন্টারন্যাশনাল আইস অ্যান্ড স্নো স্কাল্পচার ফেস্টিভ্যাল’। ১৯৬৩ সাল থেকে চিন দেশে হয়ে আসছে এমন উৎসব। মাঝে সাংস্কৃতিক বিপ্লবের সময় কিছু দিন ছেদ পড়েছিল তাতে। উত্তর-পূর্ব চিনের হার্বিন শহরে এই উৎসব শুরু হয় জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে। চলবে প্রায় মাস দেড়েক।

এ বছরের হার্বিন উৎসব ইতিমধ্যে জমে উঠেছে। বরফের তৈরি স্থাপত্য দেখতে দেশ-বিদেশ থেকে মানুষ ছুটছে হার্বিন শহরে। গেল মরশুমে ১ কোটি ৮ লক্ষ ছাড়িয়েছিল দর্শনার্থীর সংখ্যা।

হার্বিনের বরফ উৎসবে প্রদর্শিত সব তুষার-স্থাপত্য কিন্তু যেমনতেমন ভাবে তৈরি হয় না। এটি পুরোপুরি থিমের উৎসব। চিনা বিদেশনীতির সঙ্গে প্রাসঙ্গিকতা বজায় রেখে সেজে ওঠে বরফ-প্রদর্শনী।

সিল্ক রুট, মস্কোর রেড স্কোয়ার, ব্যাঙ্ককের বুদ্ধমন্দিরের আদলে এ বছর বানানো হয়েছে তুষার-স্থাপত্য। চিনা পর্যটনকে লাভের মুখ দেখাতেও হার্বিন উৎসব যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ।

২০১৭-র হার্বিন বরফ উৎসব থেকে চিনা পর্যটনের আয় হয়েছিল প্রায় ৬০০ কোটি মার্কিন ডলার।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here