ওয়েবডেস্ক : সুকুমার রায়ের খিচুড়ি কবিতাটা মনে আছে? সেই হাঁসজারু। সজারু আর হাঁস মিলে একটা দেহ তৈরি হয়েছিল। তাই বৈরিতা ছিল না। কিন্তু কবিতা নয় বাস্তবেও বৈরিতা দেখা গেল না কুকুর আর হাঁসের মধ্যে। কেউ কাউকে তেড়েও যায় না। কেউ কাউকে ভয়ও পায় না। এখানে হাঁস আর কুকুরের দেহ আলাদা আলাদা। কিন্তু তা হলে কী হবে? বন্ধুত্ব গলায় গলায়। এমনটা সাধারণত দেখা যায় না। হাঁস কুকুরের কান, পায়ের নোখ তার ঠোঁট দিয়ে পরিস্কার করে দিচ্ছে আর কুকুর তার মুখ দিয়ে হাঁসের ঠোঁট সাফা করছে। ধন্য ওদের বন্ধুত্ব।

বন্ধুর কানের পাশ পরিষ্কার করতে ব্যস্ত হাঁস
বিউটি পার্লারের গোটা কাজটাই হয়ে যাচ্ছে নিঃখরচায়
বন্ধুর ঠোঁট নিজের জিভ দিয়ে পরিষ্কার করে দিচ্ছে কুকুর বন্ধু

ছবি : শান্তনু ভট্টাচার্য

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here