ওয়েবডেস্ক: নিজের নাম আর পদবীর মাঝে স্ত্রীর নামের আদ্যক্ষর যোগ করাটা, সন্দেহ নেই, খুবই সুন্দর একটা কাজ! আনন্দ এস আহুজা যা করে দেখিয়েছেন, তেমনটা করার মতো কলজে খুব কম ভারতীয় পুরুষেরই রয়েছে! ফলে, এ নিয়ে তিনি প্রশংসা পেয়েছেন বিস্তর, পাশাপাশি সনাতনীরা নাক কুঁচকোতেও ছাড়েননি! কিন্তু হালফিলে যা দেখা যাচ্ছে, তা কি এটাই প্রমাণ করছে যে সোনম কে আহুজার মর্জি অনুযায়ী চলতে বাধ্য হন আনন্দ?

 

View this post on Instagram

 

You may kiss the bride ❤️❤️❤️ #anandahuja #sonamkapoor @viralbhayani

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani) on

 

View this post on Instagram

 

#anandahuja with his bride #sonamkapoor ❤️❤️❤️😍😍 @viralbhayani

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani) on

বলিউডের নিন্দুকরা অন্তত সে রকমই বলাবলি করছেন! বলছেন, যে কোনো দিক থেকেই আনন্দকে তাল মিলিয়ে চলতে হয় সেলিব্রিটি গিন্নির ইচ্ছের সঙ্গে! এ তো তিনি এর আগে স্বীকার করেছেন নিজের মুখেই- পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুন না কেন, খেতে বসার আগে তা ফোন করে জানাতে হয় স্ত্রীকে! পাশাপাশি, দুই সপ্তাহের বেশি সোনমের চোখের আড়াল হওয়ার ছাড়ও নেই তাঁর! বিশদে জেনে নিতে পারেন নীচের লিঙ্কে ক্লিক করে!

আরও পড়ুন: স্বামী না খেলে খেতে বসেন না, দুই সপ্তাহের বেশি আনন্দকে চোখের আড়ালও করেন না সোনম!

 

View this post on Instagram

 

#sonamkapoor ❤️

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani) on

সেই পর্ব পেরিয়ে এসে এ বার রাজধানীতে পত্নীপ্রেমের নয়া পরাকাষ্ঠা স্থাপন করলেন আনন্দ। সেখানে এক গয়না সংস্থার নয়া সম্ভার গায়ে তুলে ফ্যাশন সরণিতে পায়চারি করেছেন সোনম! অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর দেখা গেল, রাজরানির মতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন নায়িকা আর তাঁর মাটিতে লুটিয়ে থাকা আঁচলটি সযত্নে ধরে কখনও পিছনে, কখনও বা পাশে দৌড়াদৌড়ি করছেন আনন্দ! দেখছেনই তো সব নিজের চোখে, কী বুঝছেন বলুন তো?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন