ওয়েবডেস্ক: চলতি বছরের জুলাই মাসেই ঘোষণা করা হয়েছিল- সেপ্টেম্বর মাসের ৮ তারিখে কল্লোলিনী আলোকিত এক সাঁঝে খুঁজে নেবে তিন তনয়া! যাঁরা শুধুই সৌন্দর্যে নন, পাশাপাশি বুদ্ধিমত্তা আর ব্যক্তিত্বের দিক থেকেও উজ্জ্বল করে তুলবেন শহরের পরিচিতিকে। সেই প্রতিশ্রুতি পূর্ণ করার লক্ষ্যে, নব প্রজন্মের সুন্দরীদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিয়ে শনিবার চাঁদের হাট বসল শহরের বুকে। সল্টলেকের কাউন্সিলর এবং অনুষ্ঠানের প্রধান উদ্যোক্তা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে যে অনুষ্ঠানে চুলচেরা বিচারের পর তিন তনয়াকে বেছে নিলেন শশী পাঁজা, অগ্নিমিত্রা পাল, মিমি চক্রবর্তী, অলকানন্দা রায়, রুদ্রনীল ঘোষ প্রমুখ।

tanaya the queen of kolkata 2018
কল্লোলিনী আলোকিত, ছবি: নিজস্ব

তবে, দ্বিতীয় বছরের তনয়া-র অনুষ্ঠানকে শুধুই সৌন্দর্যের প্রতিযোগিতা ভাবলে ভুল হবে! পাশাপাশি, এই অনুষ্ঠান আর এক দিক থেকেও নজির গড়েছে। সৌন্দর্য যে শুধুই ত্বকে নয়, বরং তা লুকিয়ে থাকে সত্তায়- এ কথা প্রমাণ করে দিয়ে, অগ্নিমিত্রা পালের তৈরি করে দেওয়া পোশাকে সেজে সুন্দরীরা এই শহরের অ্যাসিড হানায় ক্ষতিগ্রস্ত মহিলাদের হাত ধরে পায়চারি করলেন ফ্যাশন সরণিতে। অবশেষে, নানা পরীক্ষার সমাপ্তিতে, বিচারকদের মতামতকে সঙ্গী করে মিমি চক্রবর্তী মুকুট পরিয়ে দিলেন বিজয়িনী অস্মিতা দে, প্রথম রানার-আপ রিয়া পাল এবং দ্বিতীয় রানার-আপ পৌলোমী দত্তকে! সেই অনুষ্ঠানেরই কিছু ঝলক রইল নীচের এই গ্যালারিতে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন