অর্থনীতিকে বাদ দিয়ে কি রাজনীতি হয়?

0

চিরঞ্জীব পাল : সেই নোট বাতিলের সময় অর্থনীতিতে প্রথম ধাক্কাটা লেগেছিল। তারপর জিএসটি। এই জোড়া ধাক্কার রেশ এখনও কাটেনি। রেশ সামলাতে কার্যত হিমশিম অবস্থা নরেন্দ্র মোদী সরকারের।

লক্ষ্য ছাপ্পান্ন ইঞ্চি ছাতির মতো চওড়া হলেও সেই লক্ষ্য অধরা থেকে গিয়েছে। দেশের অর্থনীতির ছাতি ক্রমশ চুপসে গিয়েছে। বেকারত্ব, আকাশ ছোঁয়া মূল্যবৃদ্ধি, গাড়ি শিল্পে মন্দা, ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার হাঁসফাস অবস্থা — সব মিলিয়ে ক্রমশ নিম্নমুখী অর্থনীতির গ্রাফ। হাজার টানা হ্যাঁচড়া করেও তাকে তোলা যাচ্ছে না।

অথচ নোটবন্দির সময়কাল থেকেই বাড়বাড়ন্ত হয়েছে গোরক্ষকদের তাণ্ডব, গণপিটুনি, কে কী খাবে তা নিয়ে বিচার, জাত-পাত, গণেশের মাথা প্লাস্টিক সার্জারি করে বসানো হয়েছে জাতীয় তত্ত্বের।

অধুনা ঘাড়ে চেপে বসেছে সিএএ, এনআরসি এবং এনপিআরের মতো বিষয়। এ সব ইস্যু নিয়েই আন্দোলন হচ্ছে, প্রতিবাদ হচ্ছে। কিন্তু অর্থনীতির বেহাল অবস্থা, লাগাম ছাড়া মূল্যবৃদ্ধির নিয়ে সে ভাবে কোনো প্রতিবাদ আন্দোলন চোখে পড়ছে না।

গ্রাউন্ডজিরো থেকে প্রকাশিত অনর্থনীতি পুস্তিকাতে নীলাঞ্জন দত্ত সেই বিষয়টিকেই ধরতে চেয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘‘অর্থনীতিকে ফেলে রাজনীতি হয় না। বরং রাজনীতির গোড়ায় পৌঁছতে গেলে তার পেছন থেকে কোন অর্থনীতি কাজ করছে, সেটাই দেখতে হবে।’’

কোনো বিশেষজ্ঞেকে সেই দায়িত্ব ছেড়ে দিলে হবে না। সেই দায়িত্ব নিতে হবে নিজেদেরই। সেভাবেই তিনি সাম্প্রতিক অস্থির অবস্থার অর্থনৈতিক শেকড় খুঁজতে চেয়েছেন। ঝোলা কাঁধে অর্থনীতিবিদ হয়ে ‘অনর্থ নীতি’র স্বল্প পরিসরে তাকে বিশ্লেষণ করতে চেয়েছেন। বর্তমান সময়কে বুঝতে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে বইটি।

অনর্থ নীতি
লেখক: নীলাঞ্জন দত্ত
দাম : ৫০ টাকা
প্রকাশক: গ্রাউন্ড জিরো
যোগাযোগ : ৯৮৩০৪১১৫২৫

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.