রাখিতে এল নতুনের ছোঁয়া

ওয়েবডেস্ক: চলেই তো এল! ভাবছেন কী আবার চলে এল?

২৬ তারিখে যে রাখি বন্ধন উৎসব। রাখি মানেই রক্ষা বন্ধন উৎসব। রক্ষা বন্ধন উৎসবে ভাই-বোন এক পবিত্র  ভালোবাসার বন্ধনে আবদ্ধ হয়। ভাইয়ের মঙ্গল কামনায় বোন ভাইয়ের হাতে পবিত্র সুতো বেঁধে দেয়। যা ‘নিরাপত্তা ও রক্ষা বন্ধন’ চিহ্ন হিসাবে প্রকাশিত।

কিন্তু আগে ভাইয়ের হাতে রাখি মানেই ফুলের রাখি, মিকিমাউস রাখি, পাতলা পিচ বোর্ডের ওপরে সুতো, জরি, পুতি, রাংতা দিয়ে নানা রকমের ডিজাইনের রাখির প্রচলন ছিল।

কিন্তু এটা যে ডিজিটাল ভারত! সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেক কিছুই যে পাল্টেছে। চাহিদা বাড়ছে নতুন নতুন দ্রব্যের ওপর। সব কিছুতেই ফ্যাশনের ছোঁয়া। তাই বদল এসেছে রাখির ডিজাইনের ওপরেও।

ফুলের রাখির বদলে কিংবা মিকিমাউস রাখির বদলে এখন ভাইয়ের হাতে বাঁধতে পারেন কাস্টমাইজ রাখি।

যেমন ধরুন, ভাই-বোনের ছবি দেওয়া রাখি, রাখির মধ্যে ভাইয়ের নাম ইত্যাদি নানা ধরনের রাখি।

এইসব রাখি কিনতে হলে খুব সহজেই আপনি অনলাইনে পেয়ে যাবেন। এ ছাড়া অনেক সংস্থাই এখন নাম ও ছবি দেওয়া বিভিন্ন ডিজাইনের রাখি বিক্রি করছে।

ছবি সৌজন্যে:  অনিশা ক্রিয়েশান 

এ রকমই একটি সংস্থা অনিশা ক্রিয়েশানের কর্ণধার আশা পালের কাছ থেকে জানলাম কাস্টমাইজড রাখির সম্বন্ধে।

অনিশা ক্রিয়েশানের কর্ণধার আশা পাল জানিয়েছেন, ‘সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সব কিছুতেই শুধু বদলের ছোঁয়া। তাই ভাবলাম যদি নতুনত্বের কিছু স্বাদ মানুষের মনে দিতে পারি। তাই মাথায় এল সামনেই তো রাখি। যদি সেই পুরনো ডিজাইনের রাখির বদলে কাস্টমাইজ রাখি এই বছরে বাজারে আনা যায় তা হলে বেশ হরেক রকমের নতুন রাখি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারব।

কাস্টমাইজ রাখি মানেই রাখির মধ্যে ভাইয়ের নাম লেখা, ভাইয়ের ছবি অথবা ভাই-বোনের ছবি দিয়ে রাখির মধ্যে পুঁতি, বিভিন্ন রং-এর সুতো, কল্কা ডিজাইন, পাথর বিভিন্ন ধরনের উপকরণ দিয়ে বানানো হচ্ছে। ৩০-২৫০ টাকা পর্যন্ত এই রাখি পেয়ে যাবেন।

 যদি কম্বো রাখি কিনতে চান রাখি ছাড়াও ওই কম্বো প্যাকের মধ্যে কাস্টমাইজ মাগ, কাস্টমাইজ চাবির রিং ইত্যাদি পেয়ে যাবেন ৫৫০-৯০০ টাকার মধ্যে। মানুষের কাছে যাতে ঠিক সময়ে রাখি পৌঁছে দিতে পারি সেই কথা ভেবে জুন মাস থেকে রাখি বানানো শুরু করে দিই। তারপরে অ্যাড দিই। অ্যাড দেওয়ার পরেই অ্যাডভান্স অর্ডার আসতে থাকে। কলকাতা ছাড়াও পশ্চিমবঙ্গের অনেক জায়গা থেকেই অনলাইনে অনেক মানুষ রাখি বুকিং করেছে।

সব মিলিয়ে এই বছরে কাস্টমাইজড রাখির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। যারা যারা এই রাখি কিনেছেন তাঁদের প্রত্যেকের কাছ থেকে খুব ভালো রেসপন্স পাচ্ছি।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন