Connect with us

বীরভূম

বীরভূমে কড়িধ্যা গ্রামের নন্দীবাড়ির সরস্বতী পদ্মাসনা, পাশে জয়া ও বিজয়া

আনুমানিক অষ্টাদশ শতাব্দীর শেষের দিকে সীতানাথ নন্দী বীরভূমের দুবরাজপুর থেকে চলে আসেন কুড়িধ্যা গ্রামে এবং সেই সময় থেকে তিনি শুরু করেন মা সরস্বতীর পুজো।

Published

on

শুভদীপ রায় চৌধুরী

আগামী কাল সরস্বতীপুজো, বাঙালির ঘরে ঘরে মা সরস্বতীর আরাধনা। আপামর ভক্তসমাজ মেতে উঠবেন বাগদেবীর আরাধনায়। ব্যতিক্রম নয় বীরভূম জেলার কড়িধ্যা গ্রামও।

Loading videos...

কড়িধ্যা গ্রামের একটু পরিচয় দেওয়া যাক। তিনশো বছরের প্রাচীন এই গ্রাম। গ্রামে রয়েছে প্রচুর মন্দির, তার মধ্যে সংখ্যায় সব চেয়ে বেশি শিবমন্দির। এই সব মন্দিরের বেশির ভাগ অবশ্য ভগ্নপ্রায় অবস্থায় রয়েছে। সামান্য কিছু মন্দির রয়েছে অক্ষত।

কিন্তু কেন এত শিবমন্দির কড়িধ্যায়? তিনশো বছর আগে মারাঠা বর্গীরা যখন রাজনগর আক্রমণ করে তখন তাদের যাওয়ার পথ ছিল এই কড়িধ্যা দিয়ে। বর্গীরা যে পথ দিয়ে যেত, সেই পথের আশেপাশের সমস্ত গ্রাম তারা আক্রমণ করত, লুটপাট চালাত। কড়িধ্যার গ্রামবাসীরা শুনেছিলেন, এই মারাঠারা শৈব সম্প্রদায়ভুক্ত। তাই তাদের হাত থেকে নিজেদের জিনিসপত্র রক্ষা করার জন্য তাঁরা বহুসংখ্যক শিবমন্দির নির্মাণ করেন। ওই সব মন্দিরের ভেতরে জিনিসপত্র লুকিয়ে রাখা হয়।

কড়িধ্যায় প্রাচীন কাল থেকেই নানা পুজোপার্বণ অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। তার মধ্যে অন্যতম সরস্বতীপুজো। অতীতে কড়িধ্যা গ্রামে সেন বংশের জমিদারি ছিল। আর সেন পরিবারের পাশাপাশি এই গ্রামে বসবাস করেন নন্দী বংশের সদস্যরাও। আনুমানিক অষ্টাদশ শতাব্দীর শেষের দিকে সীতানাথ নন্দী বীরভূমের দুবরাজপুর থেকে চলে আসেন কড়িধ্যা গ্রামে এবং সেই সময় থেকে তিনি শুরু করেন মা সরস্বতীর পুজো। তখনকার দিনে সীতানাথ নন্দী ছিলেন বীরভূম জেলার অন্যতম উচ্চশিক্ষিত মানুষ। তাঁর কাছে বহু পড়ুয়া আসত শিক্ষা গ্রহণের জন্য। সেই থেকে নন্দীবাড়ির কুলদেবী হন মা সরস্বতী।

নন্দীবাড়ির প্রতিমায় কিছু বিশেষত্ব রয়েছে। এখানে দেবী পদ্মাসনা এবং তাঁর পাশে রয়েছেন জয়া এবং বিজয়া। একচালার সাবেকি প্রতিমা নানা পারিবারিক গহনায় সাজানো হয়।

পুজোর দিন সকালে বাড়ি সংলগ্ন পুকুর থেকে দেবীর ঘটের জল আনা হয় এবং তার পর শুরু হয় পুজো। পুকুরের জল আনার সঙ্গে সঙ্গে লাটাইয়ের সুতো ছাড়তে ছাড়তে মন্দির পর্যন্ত সুতো নিয়ে আসা হয় – এ এক বিশেষ প্রথা নন্দীবাড়ির। দেবীকে নানা রকমের ফল, মিষ্টি ইত্যাদি ভোগ দেওয়া হয়। সরস্বতীপুজোয় ঢাকিরা  বংশপরম্পরায় ঢাক বাজিয়ে আসছেন নন্দীবাড়িতে।

সরস্বতীপুজোর দিন দুপুরে সাধারণত নিরামিষ খাবার খাওয়া হয়, কিন্তু নন্দীবাড়িতে পুজোর পর দুপুরবেলায় ভাত-মাছ খাওয়ার রীতি রয়েছে। পুজোর দিন সন্ধ্যাবেলায় আরতির সময় রুপোর থালায় লুচিভোগ ও মিষ্টি নিবেদন করা হয় এবং ১০৮টি প্রদীপ জ্বালানো হয়।

মুকুরী সপ্তমীর দিন চণ্ডীপাঠ হয় এবং বারি-ঘট বিসর্জনের মাধ্যমে পুজোর সমাপ্তি ঘটে। সেই দিন দই-চিঁড়ে নিবেদন করা হয়, সিঁদুরখেলা হয় এবং বিকালে গোটা গ্রাম প্রদক্ষিণ করে প্রতিমা বিসর্জন হয়।

এ বছর করোনা ভাইরাসের কারণে প্রসাদ বিতরণ বন্ধ থাকবে এবং বিসর্জনে গ্রাম প্রদক্ষিণের যে প্রথা রয়েছে সেটাও বন্ধ থাকছে বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্য সৌরভ নন্দী। প্রশাসনের সমস্ত রকম নিয়ম মেনেই পুজো হবে। বাইরের দর্শনার্থীদের প্রবেশ এ বছর বন্ধ রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাহন ছাড়াই বীণাপাণির আরাধনা হয় উত্তর কলকাতার বটকৃষ্ণ পালের বাড়িতে

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

বীরভূম

Bengal Polls 2021: নানুরের সেই এজেন্ট বললেন তাঁর গণধর্ষণ হয়নি, বিজেপির অভিযোগ ওড়ালেন বীরভূমের পুলিশ সুপারও

নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর ‘চোখে চোখ রেখে কথা বলা’ নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠীকে বীরভূমের পুলিশ সুপারের পদে নির্বাচন কমিশনই বসিয়েছে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নানুরের বিজেপির সেই এজেন্ট সাফ বললেন তাঁর গণধর্ষণ হয়নি। মঙ্গলবার তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের পাশে বসেই সাংবাদিক সম্মেলনে এই দাবি করেছেন তিনি। অন্য দিকে বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠীও জানিয়ে দিয়েছেন নেটমাধ্যমে ভুয়ো খবরই ছড়ানো হয়েছে। উল্লেখ্য, নগেন্দ্রকে নির্বাচন কমিশনই দায়িত্বে এনেছে। নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘চোখে চোখ রেখে কথা বলার জন্য’ নজর কেড়েছিলেন তিনি।

নির্বাচনের পর থেকেই নানুরের বিজেপি কর্মী তথা এজেন্ট অপর্ণা রায়ের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না বলে অভিযোগ করেছিলেন তাঁর দলের একাংশ। মঙ্গলবার সকাল থেকেই টুইটার এবং ফেসবুকে বিজেপি নেতারা দাবি করতে থাকেন যে ওই মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। তৃণমূলের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করা হয়। গোটা ঘটনায় সাম্প্রদায়িক মোড় দেওয়ারও চেষ্টা করা হয়।

Loading videos...

এর পরই বোলপুরের দলীয় কার্যালয়ে ওই মহিলাকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন অনুব্রত। তিনি বলেন, “এ ভাবে ভুয়ো খবর রটাচ্ছে বিজেপির আইটি সেল। এ ভাবে একজন মহিলার বদনাম করা একেবারেই ঠিক নয়। এই মহিলা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন। এই কার্যকলাপের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷”

অনুব্রতের মতোই গোটা ঘটনাকে মিথ্যা বলে আখ্যা দিয়েছেন ওই মহিলা। তাঁর দাবি, ‘‘নির্বাচনের দিন আমার বাড়ির সামনে হইহুল্লোড় হচ্ছিল বলে ভয়ে বাপের বাড়ি চলে গিয়েছিলাম। কে বা কারা রটিয়েছে যে আমাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। এ কথা একেবারেই মিথ্যে। আমার সঙ্গে এমন কোনও ঘটনাই ঘটেনি।”

তৃণমূলের বিরুদ্ধে নানুরের দু’জন মহিলা এজেন্টকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে বিজেপি। এমনকি বহু মেয়ের শ্লীলতাহানিও করা হয়েছে বলেও অভিযোগ। এ নিয়ে নেটমাধ্যমে বার বার পোস্ট করতেও দেখা গিয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বকে।

গোটা ঘটনার প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্র বলেন, “কিছু পার্টির লোক নেটমাধ্যমে প্রচার করছে যে নানুরে দু’জন বিজেপি মহিলাকে ধর্ষণ করা হয়েছে৷ এই খবর একেবারেই ভুয়ো। এমন কিছুই হয়নি। আমরা নানুরের বিজেপি প্রার্থী ও স্থানীয় নেতাদের সঙ্গেও কথা বলেছি। কিন্তু এমন তথ্যই তাঁদের কাছে নেই।”

তাঁর আরও দাবি, “নির্বাচনের পর বীরভূমে বড়ো কোনো ঘটনা ঘটেনি। ধর্ষণ করা হয়েছে বলে ভুয়ো খবর ছড়ানো হচ্ছে। যে বা যারা এমন করছে, তার বিরুদ্ধে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।”

আরও পড়তে পারেন: Oath Ceremony Live: আর কিছুক্ষণ পরেই মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথগ্রহণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Continue Reading

বীরভূম

Bengal Polls 2021: বীরভূমে ভোটের আগে অনুব্রত মণ্ডলকে নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের!

বীরভূমে ভোটের দু’দিন আগে থেকেই ফের নজরবন্দি অনুব্রত মণ্ডল।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: আগামী ২৯ এপ্রিল ভোটগ্রহণ বীরভূমে। তাঁর দু’দিন আগে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)-কে নজরবন্দি করার নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন (EC)।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা থেকে ৩০ এপ্রিল সকাল ৭টা পর্যন্ত নজরবন্দি থাকবেন অনুব্রত। পাশাপাশি তাঁর সঙ্গে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং এগ্‌জিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট। এই সময়কালে তাঁর গতিবিধি নজরে রাখবে কমিশন। করা হবে ভিডিওগ্রাফি।

Loading videos...

এর আগেও রাজ্যের নির্বাচনে অনুব্রতকে একাধিক বার নজরবন্দি করেছিল কমিশন। ২০১৬-র বিধানসভা ও ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের সময় বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতিতে নজরবন্দি করেছিল কমিশন। এ বার ফের একই পদক্ষেপ করল কমিশন।

এ বারেও যে তাঁকে নজরবন্দি করা হতে পারে, তেমন আশঙ্কা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী এবং তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি বোলপুরের গীতাঞ্জলী প্রেক্ষাগৃহে ভার্চুয়াল প্রচার সভা থেকে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, “এ বার নজরবন্দি করলে অনুব্রতকে বলব আদালতে যেতে”। মমতার সেই আশঙ্কাই সত্যি হল এ দিন।

জানা গিয়েছে, কমিশনের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে চলেছেন অনুব্রত। সংবাদ মাধ্যমের কাছে তিনি বলেন, “এটা কমিশনের রুটিনমাফিক ডিউটি। শান্তিপূর্ণ ভাবেই ভোট হবে। খেলা হবে”।

গরু পাচার-কাণ্ডে এ দিনই অনুব্রতকে সিবিআই তলব করেছিল। তবে তিনি জানিয়ে দেন, মঙ্গলবার নিজাম প্যালেসে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন না। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার থেকে আরও কিছুদিনের জন্য তিনি সময় চেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: Bengal Polls 2021: যে জল দেবে, তাকেই ভোট দেব, মন্ত্রীর মুখের উপর জবাব

Continue Reading

বীরভূম

Bengal Polls 2021: যে জল দেবে, তাকেই ভোট দেব, মন্ত্রীর মুখের উপর জবাব

“এখন ভোটের জন্য সবাই আসছে, তখন তো গ্রামে কেউ আসত না। কী করছে লোকগুলো, কাজ পাচ্ছে কি না, কী খাচ্ছে, কী করছে, তখন তো কেউ খোঁজ নিত না”।

Published

on

নিজস্ব প্রতিনিধি: জনা চল্লিশ গ্রামবাসীকে নিয়ে ছোটো একটা সভায় বক্তৃতা করছিলেন বোলপুরের তৃণমূল প্রার্থী এবং রাজ্যের বিদায়ী মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা। সমবেত শ্রোতাদের কাছে ভোটপ্রার্থনা করার পর মন্ত্রীর মুখের উপর এক মহিলা শুধিয়ে দিলেন,”যে জল দেবে, তাকেই ভোট দেব”।

বোলপুর স্টেশন থেকে পাঁচ কিমিরও দূরে আদিবাসী অধ্যুষিত আমড়াডাঙায় যেন অন্য এক দুনিয়া। যেমন রাস্তাঘাট, ঘরবাড়ি, তেমনই মানুষের জীবনযাপনের মান। এলাকায় ঢোকার মুখেই চোখে পড়ল এক তলার ঝকঝকে পাকাবাড়ি, মাথায় লেখা রয়েছে, আমড়াডাঙা অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র। ব্যস ওইটুকুই। একশোর দিনের প্রকল্পে ঢালাই রাস্তা এবং কেন্দ্র-রাজ্য সরকারের সহায়তায় মাথাগোঁজার ঠাঁই চোখে পড়ার মতো নয়। জলের সমস্যাও যে কতটা তীব্র, তা নিয়ে তৃণমূলের নেতা, এমনকী মন্ত্রীর সামনেও ক্ষোভ প্রকাশ করতে ছাড়লেন না গ্রামবাসীদের একাংশ।

Loading videos...

এমনই একটি গ্রামে গত শুক্রবার নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মেনেই ছোটো সভায় অংশ নিয়েছিলেন মন্ত্রী। সংক্ষিপ্ত সেই সভা শেষ হতেই পানীয় জলের জন্য ক্ষোভপ্রকাশ করলেন গ্রামবাসীদের একাংশ। জানিয়ে দিলেন, “যে জল দেবে, তাকেই ভোট দেব”। এ কথা শুনে মন্ত্রীর আশ্বাস, ফলাফল বেরনোর চার দিনের মধ্যে জলের কল বসে যাবে। তবে শুধু এই গ্রাম-ই নয়, বোলপুর বিধানসভার অন্তর্গত ইলামবাজার ও বোলপুর-শ্রীনিকেতন ব্লকের রজতপুর বা কাশীপুরের মতো অনেক এলাকাতেই পানীয় জলের সংকট প্রকট।

কাশীপুরের এক বাসিন্দা জানালেন, সরকার থেকে যে ডিপ টিউবওয়েল বসানো হয়েছিল, তাতে জল পড়ে না। বাধ্য হয়ে অনেকেই নিজের বাড়িতে সাব মার্সিবল পাম্প বসিয়ে নিয়েছে। কিন্তু সেটা তো সবার পক্ষে সম্ভব নয়। খরচ প্রায় ৩০ হাজার টাকা।

এলাকার মানুষের দৈনন্দিন সমস্যা সম্পর্কে চন্দ্রনাথবাবু বলেন, “স্বাধীনতার পর থেকে গ্রামবাংলার উন্নয়ন সে ভাবে হয়নি। দশ বছরে আমরা যতটা পেরেছি, করেছি। যে কাজগুলো বাকি রয়েছে, আগামী পাঁচ বছরে আমরা তা সব করব”।

বিজেপি প্রার্থী অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “বোলপুর বিধানসভার বহু গ্রামে পানীয় জলের অভাব রয়েছে। মানুষ জল চায়, স্বাস্থ্য পরিষেবা, পাকাবাড়ি চায়- এই হল তাদের চাহিদা। এগুলো এত বছর ধরে তাদের দেওয়া হয়নি”।

অন্যদিকে আরএসপির বোলপুর জোনাল কমিটির সম্পাদক তুষার বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আদিবাসী এলাকাগুলোর যতটুকু উন্নয়ন হয়েছে, তা বামফ্রন্ট সরকারের আমলেই হয়েছে। কাশীপুরে আমরাই পানীয় জলের ব্যবস্থা করেছিলাম। কিন্তু এই দশ বছরের মধ্যে জনসংখ্যা অনেক বেড়েছে। এখন যারা ক্ষমতায় রয়েছে, তারা যদি এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট ব্যবস্থা না নেয়, তা হলে কী হবে। বোলপুরে যে জার্মান প্রকল্প হয়েছিল, সেটা তো বামফ্রন্ট সরকারের আমলেই হয়েছিল”।

তবে শ্রীনিকেতন পঞ্চায়েত সমিতির অন্তর্গত আমড়াডাঙার ওই মহিলা বললেন, “এখন তো ভোটের জন্য সবাই আসছে, তখন তো কেউ আসত না। গ্রামে কেউ আসত না। কী করছে লোকগুলো, কাজ পাচ্ছে কি না, কী খাচ্ছে, কী করছে, তখন তো কেউ খোঁজ নিত না। এখন ভোটের জন্য সবাই আসছে”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “লকডাউনের সময় আমরা চাল-তেল পেয়েছি। কিন্তু আমাদের এখানে খাবার জলের অভাব রয়েছে। আমরা খাবার জলের দাবি করছি। আমাদের কল নেই, সাব মার্সিবল নেই, আমরা সেগুলোই চাইছি”।

স্থানীয় বিধায়কের কাছ থেকে কেমন পরিষেবা পেয়েছেন, এমন প্রশ্নের উত্তরে ওই মহিলা বলেন, “রেশন কার্ডগুলো আগে বড়ো ছিল, এখন ছোটো ছোটো কার্ড দিয়েছে”।

ক্লিক করে দেখুন এখানে: অনুব্রত মণ্ডলের গড়ে এ বার জোর টক্কর দিতে তৈরি বিজেপি

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
delhi pollution
পরিবেশ21 mins ago

পরিবেশগত ভাবে সব থেকে ঝুঁকিপূর্ণ বিশ্বের ২০ শহরের মধ্যে ১৩টি ভারতে

ধর্মকর্ম1 hour ago

Religious Places in Bengal: কালীক্ষেত্র কালীঘাট

দেশ2 hours ago

Corona Lockdown: বিহারে লকডাউনের মেয়াদ বেড়ে ২৫ মে, ঘোষণা নীতীশ কুমারের

শিল্প-বাণিজ্য2 hours ago

জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠক অবিলম্বে ডাকা হোক, নির্মলা সীতারমনকে চিঠি অমিত মিত্রের

examination
শিক্ষা ও কেরিয়ার2 hours ago

Civil Services Prelims 2021: সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা স্থগিত করল ইউপিএসসি

Dead Body
দেশ3 hours ago

পাকিস্তান সীমান্তে নিজের সার্ভিস রিভলবারের গুলিতে আত্মঘাতী বিএসএফ জওয়ান

দেশ3 hours ago

কোভিড থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার অন্তত ৬ মাস পর আক্রান্তদের টিকা দেওয়ার প্রস্তাব সরকারি প্যানেলের

covishield
দেশ5 hours ago

কোভিশিল্ডের দু’টি ডোজের মধ্যে ব্যবধান আরও বাড়ানোর প্রস্তাব দিল সরকারি প্যানেল

Madhyamik examination west bengal
শিক্ষা ও কেরিয়ার2 days ago

Madhyamik 2021: আপাতত সম্ভব নয় মাধ্যমিক পরীক্ষা, সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় পর্ষদ

বিজ্ঞান2 days ago

জানেন কি, কোভিড থেকে সুস্থ হওয়ার পর অ্যান্টিবডিগুলি কত দিন পর্যন্ত রক্তে থেকে যায়

দেশ2 days ago

Covid Crisis: সংক্রমণের ধার কমাতে একটি বিশেষ ওষুধে ছাড়পত্র দিল গোয়া, খেতে হবে সবাইকে

প্রযুক্তি2 days ago

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কোভিড অ্যাপ, সহজে জানা যাবে যাবতীয় তথ্য

বিজ্ঞান2 days ago

রক্তের গ্রুপের উপর কি কোভিড আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে, গবেষণায় জানাল সিএসআইআর

দেশ2 days ago

Corona Update: দৈনিক সংক্রমণকে ছাপিয়ে গেল সুস্থতা, দু’মাস ধরে টানা বৃদ্ধির পর অবশেষে কমল সক্রিয় রোগী

শরীরস্বাস্থ্য1 day ago

করোনার এই দুঃসহ সময়ে অক্সিজেন বিপর্যয়ের সহজ সমাধান দিলেন বিজ্ঞানী ড. বিজন কুমার শীল

দেশ2 days ago

Covid Crisis: অক্সিজেনের অভাবে ১১ কোভিডরোগীর মৃত্যু অন্ধ্রপ্রদেশের হাসপাতালে

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা4 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে