ওয়েবডেস্ক : এবার শুধু এলোমেলো বর্ণমালা বা সংখ্যা-চিহ্ন নয়, ক্যাপচা টেস্টে বেশ কয়েক কদম এগিয়ে ব্যাবহারকারীর মুখের ছবি চাইছে সোস্যাল সাইট ফেসবুক।

ফেসবুকের দাবি, ব্যবহারকারী প্রকৃত ব্যক্তি কি না, তা যাচাই করার জন্য এই ধরনের ক্যাপচা টেস্টের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

প্রশ্ন উঠছে, এতে কি গোপনীয়তা সম্পূর্ণভাবে রক্ষা করা সম্ভব হবে ?

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছেন, এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। কারণ অ্যাকাউন্ট ওপেন করার সময় বলা হচ্ছে-আপলোড আ ফোটো অব ইউরসেল্ফ দ্যাট ক্লিয়ারলি শোজ ইওর ফেস। ব্যস, তা করা হলেও তাঁরা সেটিকে পরীক্ষা করে দেখে নিচ্ছেন। এবং কাজ মিটে গেলেই বরাবরের মতো সেটিকে মুছে ফেলা হচ্ছে ফেসবুকের সার্ভার থেকে।

ভুয়ো নাম ও ছবি ব্যাবহার করে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে অপরাধমূলক কাজ সংগঠনের প্রবণতা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এক ব্যক্তি একাধিক অ্যাকাউন্ট খুলে ফেসবুক মারফত হরেক রকমের দুষ্কর্ম চালিয়ে যেতে ‌পারে অনায়াসেই। এই খামখেয়ালিপনা এবং অপরাধ রুখতেই যে ফেসবুকের এমন পরিকল্পনা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

যদিও এধরনের ফেসিয়াল টেকনোলজির প্রয়োগ এই প্রথম নয়। অ্যাপেল ফেস আইডি বা আইফোন টেন-এর  ব্যাবহারকারীরা এ বিষয়ে যথেষ্ট অবহিত।তবে পরীক্ষামূলক ভাবে এই উদ্যোগ মাঠে নামানো হলেও স্থায়ী ভাবে ঠিক কবে থেকে চালু হবে, সে ব্যাপারে আগাম কিছু জানাতে নারাজ ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here