shivan

বেঙ্গালুরু: ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রযান-২ মহাকাশে নিক্ষেপ করার কথা ছিল জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই। তা যে সম্ভব হবে না সে কথা আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরোর পক্ষ থেকে। কিন্তু ঠিক কবে হবে সেই দিন ঠিক করা এখনও সম্ভব হয়নি বলে জানালেন সংস্থার চেয়ারম্যান শিভান কে। অন্য দিকে চিনের মহাকাশ যান ছাং’এ ৪  ১ থেকে ৩ জানুয়ারির মধ্যেই অবতরণ করতে চলেছে চাঁদের অন্ধকারাচ্ছন্ন এলাকাতেই। চন্দ্রযান-২-এরও পৌঁছানোর কথা চাঁদের অন্ধকারাচ্ছন্ন দিকটিতেই।

আরও পড়ুন ঃ নতুন বছরে হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ হল এই সব ফোনগুলোতে

শিভান বলেন, ইসরো ২০১৮ সালের শেষের দিকে বেশ কয়েকটি উৎক্ষেপণ নিয়ে খুবই ব্যস্ত ছিল। স্বভাবতই তার ফলে কিছুটা হলেও বাধা তৈরি হয়েছে চন্দ্রযান-২-এর কাজে। তিনি এর তারিখ নিয়ে এখনই কিছু বলতে পারবেন না। কারণ দিন ঠিক করতে কম করে ১০ থেকে ১২ দিন সময় লেগেই যাবে।

উল্লেখ্য চিন আর ভারতের চন্দ্রযান দু’টির মধ্যে কোনটি আগে চাঁদের অদেখা মাটি ছুঁতে পারে তা নিয়ে একটি রেষারেষি ছিল। সে ক্ষেত্রে চিনের ছাং-এ৪ আগে চাঁদের মাটিতে পৌঁছতে চলেছে। চন্দ্রযান চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে পৌঁছবে।

চিনের সংবাদ সংস্থা জিংহুয়া থেকে জানা গিয়েছে, মহাকাশ যানটি একটি নির্দিষ্ট কক্ষপথে পৌঁচেছে। তবে চাঁদে ঠিক কখন নামবে সেই সময়টি এখনও জানা যায়নি।

চন্দ্রযানের ক্ষেত্রে দেরি হলেও মঙ্গল অভিযানের বিষয়টি দেরি করা হবে না বলে জানালেন, শিবান। কাজ খুব দ্রুত আর ভালো ভাবে এগোচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here