Connect with us

বিজ্ঞান

সূর্যাস্তের পর অন্তত ২০ মিনিট দেখুন উত্তর-পশ্চিম আকাশে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’, চলবে মাসভর

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এক মহাজাগতিক ঘটনার সাক্ষী থাকুন। এখন থেকে অন্তত ২০ দিন এক ধূমকেতুর (comet) পৃথিবী পরিক্রমা দেখুন। ঠিক সূর্যাস্তের পরে উত্তর পশ্চিম আকাশে চোখ রাখলে আপনি এই ঘটনার সাক্ষী থাকতে পারেন। আকাশ যদি মেঘমুক্ত দূষণমুক্ত থাকে, তা হলে খালি চোখেই আপনি ধূমকেতুর পথ চলা দেখতে পাবেন। দেখবেন তার উজ্জ্বল পুচ্ছটি। আর বায়নোকুলার থাকলে তো কথাই নেই।

ধূমকেতুর নাম ‘সি/২০২০/এফ৩’ (C/2020/F3) বা ‘নিওওয়াইজ’ (Comet Neowise) । এই ধূমকেতুর অস্তিত্বের খবর পাওয়া গিয়েছে গত মার্চ মাসে। নাসার (NASA) নিওওয়াইজ মিশন (Neowise Mission) এটি আবিষ্কার করেছে। মহাকাশের এক টেলিস্কোপ গত ২৭ মার্চ নিওওয়াইজ-এর খবর দিয়েছে।

‘নিওওয়াইজ’-এর আসল নাম ‘সি/২০২০/এফ৩’ কেন? এর ব্যাখ্যা দিয়েছেন ভুবনেশ্বরের পাঠানি সামন্ত প্ল্যানেটেরিয়ামের ডেপুটি ডিরেক্টর ড. শুভেন্দু পট্টনায়েক। তিনি জানান, ‘সি’ নামে ‘কমেট’, ‘২০২০’ মানে বছর আর ‘এফ৩’ মানে এ বছরের তিন নম্বর ধূমকেতু। এর আগে ‘টার্টল’ আর ‘সোয়ান’ নামের দুই ধূমকেতুকে খালি চোখে যায়নি।     

Loading videos...

ড. শুভেন্দু পট্টনায়েক বলেন, ১৪ জুলাই থেকে খালি চোখে এই ধূমকেতুটিকে দেখা যাচ্ছে। আগামী অন্তত ২০ দিন সূর্যাস্তের পর ২০ মিনিট ধরে উত্তর পশ্চিম আকাশে এই ধূমকেতুটিকে দেখা যাবে।

ড. পট্টনায়েক আরও জানান, ১৪ জুলাই ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’ (Comet Neowise) উত্তর পশ্চিম আকাশে দিগন্তরেখা থেকে ২০ ডিগ্রি উপরে ছিল। যত দিন যাবে, ধূমকেতুটি ক্রমশ উপরে উঠে আসবে। এবং সূর্যাস্তের পর বেশিক্ষণ ধরে দেখা যাবে। ৩০ জুলাই ওই ধূমকেতু দিগন্তরেখার ৪০ ডিগ্রি উপরে থাকবে। সে দিন সূর্যাস্তের পর এক ঘণ্টা দেখা যাবে এই ধূমকেতুকে। এবং সপ্তর্ষিমণ্ডলের কাছে দৃশ্যমান থাকবে।

আগামী ২২ জুলাই এই ধূমকেতু পৃথিবীর সব চেয়ে কাছে আসবে। তখন পৃথিবী থেকে এর দূরত্ব থাকবে ১০৩ মিলিয়ন কিমি অর্থাৎ ১০ কোটি ৩০ লক্ষ কিমি।

জ্যোর্তিবিজ্ঞান বিষয়ক অনলাইন পত্রিকা ‘স্কাই অ্যান্ড টেলিস্কোপ’ বলেছে, ‘নিওওয়াইজ’কে দেখার সব চেয়ে ভালো সময় হল সূর্যাস্তের পর এক ঘণ্টা। পুরো অন্ধকার নামার আগে গোধূলির শেষটুকু রেশ যখন মিলিয়ে যায়, তখনই উত্তর-পশ্চিম আকাশে দেখা মিলবে ‘নিওওয়াইজ’-এর।       

বিজ্ঞান

এক দিন এখন ২৪ ঘণ্টার থেকেও কম, কারণটা জেনে নিন এখানে

চমকপ্রদ তথ্য উদ্ঘাটন করলেন বিজ্ঞানীরা। এখন আর এক দিনের দৈর্ঘ্য ২৪ ঘণ্টা নয়। কী ভাবে?

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: শেষ অর্ধশতকের তুলনায় পৃথিবী যত দ্রুত গতিতে ঘুরছে, ততই কমছে এক দিনের সময়সীমা। অর্থাৎ, শেষ পাঁচ দশক ধরে পৃথিবীর আবর্তনের গতি বৃদ্ধি পাওয়ার কারণেই গ্রহটির প্রতিটা দিনের মেয়াদ এখন ২৪ ঘণ্টার থেকেও কম!

ডেলি মেল -এর রিপোর্টে বলা বিজ্ঞানীদের মন্তব্য উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, এই চমকপ্রদ ঘটনাটির যথাযথ প্রমাণও পাওয়া গিয়েছে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পৃথিবীর আবর্তন স্বাভাবিকের চেয়ে দ্রুত গতির কারণেই বর্তমানে একটি দিনের দৈর্ঘ্য স্বাভাবিক ২৪ ঘণ্টার চেয়ে “অতিসামান্য” ছোটো হচ্ছে।

২০২০-র থেকে ছোটো হবে ২০২১?

২০২০ সালে সব থেকে ছোটো দিনের সংখ্যা ছিল ২৮টি। ১৯৬০ সালের পর থেকে যা সব থেকে বেশি। এমনকী ২০২১ সাল আরও ছোটো হতে পারে বলে পূর্বাভাস মিলেছে।

Loading videos...

সময় এবং তারিখ অনুযায়ী, সূর্যের প্রতি গড় হিসাবে পৃথিবী প্রতি ৮৬,৪০০ সেকেন্ডে একবারে ঘোরে, যা ২৪ ঘণ্টা বা একটি অর্থ সৌর দিনের সমান।

বিজ্ঞানীদের ধারণা, ২০২১ সালের গড় দিনটি ৮৬,৪০০ সেকেন্ডের চেয়ে ০.০৫ মিলি সেকেন্ড কম হবে। ১৯৬০ সাল থেকে দিনের দৈর্ঘ্যের অতি-সুনির্দিষ্ট রেকর্ড রেখে চলা পারমাণবিক ঘড়িগুলি পুরো বছর ধরে প্রায় ১৯ মিলিসেকেন্ডের ব্যবধান তৈরি করবে।

কী ভাবে সময় কমছে

লাইভ সায়েন্সের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “রেকর্ডে সব চেয়ে দ্রুততম ২৮টা দিন (১৯৬০ সাল থেকে) দেখা গিয়েছিল ২০২০ সালে। কারণ, ওই দিনগুলিতে পৃথিবী নিজের অক্ষের চারপাশে ঘূর্ণনগুলি গড়ের থেকে প্রায় মিলিসেকেন্ড সময় দ্রুত সম্পন্ন করে।”

পারমাণবিক ঘড়ির হিসেব অনুযায়ী, গত ৫০ বছর ধরে পৃথিবী একটি ঘূর্ণন সম্পন্ন করতে ২৪ ঘণ্টার (৮৬,৪০০ সেকেন্ড) চেয়ে কিছুটা কম সময় নিয়েছে।

ডেলি মেলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৯২০ সালের ২০ জুলাই পৃথিবীতে সব চেয়ে সংক্ষিপ্ত দিনটি রেকর্ড করা হয়েছিল (যেহেতু ওই দিনেই রেকর্ড শুরু হয়েছিল)। ওই দিনটি ছিল ২৪ ঘণ্টার চেয়ে ১.৪৬০২ মিলি সেকেন্ড কম।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২০ সালের আগে সব থেকে ছোটো দিন রেকর্ড হয়েছিল ২০০৫ সালে। তবে গত বছরের ১২টি মাসে সেই রেকর্ড ২৮ বার ভেঙে গিয়েছে। উল্লেখ্য, ইন্টারন্য়াশনাল আর্থ রোটেশন অ্যান্ড রেফারেন্স সিস্টেম সার্ভিস (আইইআরএস) আনুষ্ঠানিক ভাবে পৃথিবীর একটি দিনের দৈর্ঘ্য পরিমাপ করে।

আরও পড়তে পারেন: কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনগুলি কি করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেনে কাজ করবে?

Continue Reading

বিজ্ঞান

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনগুলি কি করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেনে কাজ করবে?

কী বলছেন বিজ্ঞানীরা?

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: ক্রমশ ছড়াচ্ছে করোনার নতুন স্ট্রেন। ভারতে এখনও পর্যন্ত ছ’জনের শরীরে করোনার এই নতুন সংক্রামক রূপের সন্ধান মিললেও কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, আতঙ্কের কিছু নেই। কিন্তু সাধারণ মানুষের মনে একটা প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনগুলি করোনাভাইরাসের নতুন সংক্রামক রূপটিতে কাজ করবে তো?

বিশেষজ্ঞদের ধারণা

আমেরিকা, ব্রিটেনের মতো বেশ কয়েকটি দেশে করোনার টিকাকরণ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞদের বিশ্বাস, নতুন স্ট্রেনটির বিরুদ্ধে ভ্যাকসিনগুলি কাজ করবে। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আরও পর্যবেক্ষণ এবং পরীক্ষানিরীক্ষার প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরছেন তাঁরা।

লন্ডনের এক গবেষক জেরেমি ফারার জানান, নতুন স্ট্রেনে আক্রান্ত হলেও সুস্থ হয়ে ওঠা সম্ভব। ভ্যাকসিনও এর বিরুদ্ধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে।

Loading videos...

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্টনি ফাউসি বলেছেন, ব্রিটেন থেকে আসা তথ্যগুলি ইঙ্গিত দিচ্ছে ভ্যাকসিনগুলি নতুন ভাইরাসটিকেও প্রতিহত করতে পারে। তবে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রও পরীক্ষার মাধ্যমে তা নিশ্চিত করবে।

কেন এই প্রত্যাশা

কোনো জনসংখ্যা থেকে ভাইরাসগুলি খুবই ক্ষুদ্র পরিসরে নিজেদের পরিবর্তন করতে পারে। পরিবর্তনগুলি সামান্য হলেও বিজ্ঞানীরা ভাইরাসের গতিবিধি বা বিস্তার শনাক্ত করতে পারেন।

কিন্তু যদি কোনো ভাইরাস উল্লেখযোগ্য ভাবে পরিবর্তিত হয়, তা হলে সেটা একটি উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সে ক্ষেত্রে ভ্যাকসিনগুলি সে ভাবে সুরক্ষা দিতে পারে না।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোভি -১৯ ভ্যাকসিন পরিচালনমণ্ডলীর প্রধান বিজ্ঞান উপদেষ্টা মনসেফ স্লাওই বলেছেন, “আমরা প্রত্যাশা করছি, এটা কোনো সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াবে না”।

একটি গবেষণা জানিয়েছে, মোডের্না, ফাইজার, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকার তৈরি তিনটি ভ্যাকসিন করোনার নতুন স্ট্রেনের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সক্ষম। তবে ভাইরাস যদি বৃহত্তর চরিত্র বদল করে, তা হলে ভ্যাকসিন পরিবর্তনেরও প্রয়োজন হতে পারে। সে ক্ষেত্রের ভাইরাসের নতুন সংক্রামক রূপকে প্রতিহত করার ভ্যাকসিনের রদবদল ঘটাতে হবে। কিন্তু আপাতত তেমন কোনো ইঙ্গিত মেলেনি।

আরও পড়তে পারেন: আপনি যদি ইতিমধ্যেই কোভিডে আক্রান্ত হন, তা হলেও কি ভ্যাকসিন নিতে হবে?

Continue Reading

বিজ্ঞান

আজ সব থেকে কাছে বৃহস্পতি-শনি, জেনে নিন কিছু তথ্য

সূর্যাস্তের পড় থেকেই দেখা যাবে দুই গ্রহকে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ, সোমবার এক অসাধারণ মহাজাগতিক ঘটনার সাক্ষী হতে চলেছি আমরা। এ দিন সব থেকে কাছাকাছি চলে আসবে সৌরজগতের সব থেকে বড়ো দু’টি গ্রহ— বৃহস্পতি এবং শনি।

সোমবার এমনিতেই ২১ ডিসেম্বর, দক্ষিণায়ণ। এই দিনই দিন সব চেয়ে ছোটো থাকে এবং রাত সব চেয়ে দীর্ঘ হয়। আর এই দিনই ঘটতে চলেছে এই অসাধারণ ঘটনা। নাসা বলেছে, ১৬২৩ সালের পর এই প্রথম এত কাছাকাছি আসতে চলেছে সৌরমণ্ডলের প্রথম এবং দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্রহ দু’টি।

জেনে নিন কিছু তথ্য

১) কলকাতায় আজ, সোমবার সূর্যাস্ত হবে বিকেল ৪:৫৮-এ। সূর্যাস্তের পরে দক্ষিণ-পশ্চিম দিগন্তে দুই গ্রহকে খুব কাছাকাছি দেখা যাবে।

Loading videos...

২) তবে খুব কাছাকাছি থাকলেও দুই গ্রহের দূরত্ব ৭৩ কোটি কিলোমিটার।

৩) দু’টি গ্রহই থাকবে পরস্পরের থেকে ১/‌১০ ডিগ্রি দূরে।

৪) কলকাতায় সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৬.৪৫ পর্যন্ত দু’টি গ্রহকে মোটামুটি স্পষ্ট দেখা যেতে পারে।

৫) টেলিস্কোপে বৃহস্পতির দু’একটি উপগ্রহও দেখা যেতে পারে।

৬) ২০৮০ সালের ১৫ মার্চ ফের এত কাছাকাছি চলে আসতে পারে দু’টি গ্রহ।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

দেশে নতুন সংক্রমণ ফের ২৫ হাজারের নীচে, কমল সংক্রমণের হারও

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
election commission of india
রাজ্য1 day ago

বুধবার রাজ্যে আসছে নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ

দেশ2 days ago

মহারাষ্ট্র-কেরলে সংক্রমিত ৮০৮৬ বাকি দেশে মাত্র ৫০৭২, ২৩ মে’র পর সব থেকে কম দৈনিক মৃত্যু ভারতে

রাজ্য2 days ago

দক্ষিণবঙ্গে দু’ দিনের জন্য তাপমাত্রা বাড়লেও ফের ফিরবে শীত, উত্তরের পাহাড়ে তুষারপাতের সম্ভাবনা

ফুটবল2 days ago

এগিয়ে থেকেও ড্র করে পয়েন্ট খোয়াল এটিকে মোহনবাগান

দেশ2 days ago

মাত্র ১৮ শতাংশ ভারতীয় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার চালিয়ে যেতে পারেন, ৩৬ শতাংশ কমিয়ে দেবেন ব্যবহার: সমীক্ষা

ঘরদোর3 days ago

এই ৭টি মিথ্যে বাঁচিয়ে দিতে পারে আপনার সম্পর্কটি

শরীরস্বাস্থ্য2 days ago

হার্ট অ্যাটাকের পূর্ব লক্ষণগুলি জেনে নিন

দেশ2 days ago

শনিবার নিয়েছিলেন টিকা, রবিবার উত্তরপ্রদেশে মৃত্যু স্বাস্থ্যকর্মীর

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 hours ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা2 days ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

কেনাকাটা1 week ago

৯৯ টাকার মধ্যে ব্র্যান্ডেড মেকআপের সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : ব্র্যান্ডেড সামগ্রী যদি নাগালের মধ্যে এসে যায় তা হলে তো কোনো কথাই নেই। তেমনই বেশ কিছু...

কেনাকাটা2 weeks ago

কয়েকটি ফোল্ডিং আইটেম খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি সঙ্গে থাকলে অনেক সুবিধে হত বলে মনে হয়, কিন্তু সব সময় তা পাওয়া...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের কাজ এগুলি সহজ করে দেবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের কাজ অনেক বেশি সহজ করে দিতে পারে যে সমস্ত জিনিস, তারই কয়েকটির খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 weeks ago

ম্যাক্সিড্রেসের নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সুন্দর ম্যাক্সিড্রেসের চাহিদা এখন তুঙ্গে। সামনেই কোনো আনন্দ অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ থাকলে ম্যাক্সি পরতে পারেন। বাছাই করা কয়েকটি ড্রেসের...

কেনাকাটা2 weeks ago

রকমারি ডিজাইনের ৯টি পুঁটলি ব্যাগের কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুমে নিমন্ত্রণে যেতে সাজের সঙ্গে মিলিয়ে ব্যাগ নেওয়ার চল রয়েছে। অনেকেই ডিজাইনার ব্যাগ পছন্দ করেন। তেমনই কয়েকটি...

কেনাকাটা2 weeks ago

কস্টিউম জুয়েলারির দারুণ কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিয়ের মরশুম আসছে। নিমন্ত্রণবাড়ি তো লেগেই থাকে। সেখানে আজকাল সোনার গয়নার থেকে কস্টিউম বা জাঙ্ক জুয়েলারি পরে যাওয়ার...

কেনাকাটা3 weeks ago

রুম হিটারের কালেকশন, ৬৫০ থেকে শুরু

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভালোই শীত চলছে। এই সময় রুম হিটারের প্রয়োজনীয়তা খুবই। তা সে ঘরের জন্যই হোক বা অফিস, বা কোথাও...

কেনাকাটা3 weeks ago

চোখের যত্ন নিতে কিনুন এগুলি, খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক: অনেকেই আছেন সারা দিনের ব্যস্ততার মাঝে যদিও বা পা, হাত বা মুখের টুকটাক যত্ন নেন, কিন্তু চোখের বিশেষ...

নজরে