করোনা পাকড়াবে ‘ফেলুদা’, আইজিআইবির বিজ্ঞানীরা আনলেন স্বল্প খরচের কোভিড-১৯ পরীক্ষা

0
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: সিএসআইআর-এর ইনস্টিটিউট অব জিনোমিক্স অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজির বিজ্ঞানীরা একটি স্বল্প ব্যযের করোনাভাইরাস (Coronavirus) পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে এলেন। যাতে প্যাথোজেন (Pathogen) শনাক্তকরণের জন্য কোনো ব্যয়বহুল মেশিনের প্রয়োজন হবে না।

কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার সত্যজিত রায়ের সৃষ্টি গোয়েন্দা চরিত্র ‘ফেলুদা’র নামেই নতুন এই পরীক্ষার নামকরণ করা হয়েছে। আইজিআইবি-র ডিরেক্টর অনুরাগ আগরওয়াল জানিয়েছেন, সংগৃহীত নমুনার পরীক্ষায় সার্স- কোভ২ (SARS-coV2)-এর উপস্থিতি চিহ্নিত করার এই সহজ পরীক্ষাটির বিকাশ ঘটিয়েছেন ড. দেবজ্যোতি চক্রবর্তী এবং সৌভিক মাইতি।

কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তি মন্ত্রকের একটি বিভাগ এই সিএসআইআর (CSIR)। আগরওয়াল জানান, এটার কাজ একটা সাধারণ রিয়েল টাইম রিভার্স ট্রান্সক্রিপশন-পলিমেরেজ চেন রিঅ্যাকশনের (আরটি-পিসিআর) মতোই শুরু হয়, যা রাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড (আরএনএ)-এর এক্সট্রাকশন এবং ডিওক্সাইরিবোনিউক্লিক অ্যাসিডে (ডিএনএ) রূপান্তরিত হয়।

তিনি বলেন, এর পরে ভাইরাল নিউক্লিক অ্যাসিড পর্যায়ক্রমিক একটি অংশকে প্রশস্ত করতে একটি বিশেষ ভাবে নকশা করা পিসিআর প্রতিক্রিয়া ব্যবহার করে সেটাকে আলাদা করা হয়। তারপরে আইজিআইবিতে (IGIB) তৈরি করা একটি অত্যন্ত নির্দিষ্ট ‘সিআরআইএসপিআর, এফএনসিএএস ৯’ এর পরবর্তী পর্যায়ের সঙ্গে যুক্ত করা হয়।

জানানো হয়েছে, কাগজের স্ট্রিপে উদ্ভাবনী রসায়ন (innovative chemistry) ব্যবহার করে, সেই নির্দিষ্ট পর্যায়ক্রমের সঙ্গে আবদ্ধ সিআরআইএসপিআর কমপ্লেক্সকে ইতিবাচক ব্যান্ড হিসাবে দেখা সম্ভব। যেমন সাধারণ গর্ভাবস্থা পরীক্ষায় (প্রেগনেন্সি কিট) ক্ষেত্রে দেখা যায়।

এই ধরনের পরীক্ষার ক্ষেত্রে এক ঘণ্টারও কম সময় লাগে। তবে এই পরীক্ষার নাম ফেলুদার নামেই কেন?

উত্তরে আগরওয়াল জানান, এমআইটি এবং ক্যালিফোর্নিয়া ইউনির্ভাসিটির গবেষকরা সিআরএসআইপিআর ব্যবহার করে থাকেন। সেটার প্রযুক্তি অবশ্য ভিন্ন। তবে তারা ওই পরীক্ষার নাম দিয়েছে ‘ডিটেকটর’ এবং ‘শার্লক’। ‘ফেলুদা’র তেমনই একটি ভারতীয় সংস্করণ।

আরও পড়ুন: র‌্যাপিড টেস্ট কিটের মতো আরটিপিসিআর কিটও তুলে নিয়েছে কেন্দ্র, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

এ ব্যাপারে ড. দেবজ্যোতি চক্রবর্তী জানিয়েছেন, “আমরা গত দুবছর ধরে এই স্ট্রিপ টেস্ট কিট নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছিলাম। জানুয়ারিতে যখন চিনে করোনা মহামারীর আকার নেয়, তখন আমরা পরীক্ষা শুরু করি”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন