meghalayan age

ওয়েবডেস্ক: পৃথিবীর ভূতাত্ত্বিক ইতিহাসে নতুন যুগের সংযোজন করলেন ভূবিজ্ঞানীরা। ‘মেঘালয়ান এজ’ নামে এই যুগ শুরু হয়েছে আজ থেকে প্রায় ৪,২০০ বছর আগে। এমনই ঘোষণা করেছে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অফ জিওলজিকাল সায়ান্স। বিজ্ঞানীদের দাবি, সেই যুগের শুরুতে পৃথিবীর বড়ো অংশ জুড়ে খরা দেখা দিয়েছিল। কমে গিয়েছিল বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা।

পৃথিবীর স্থায়িত্বের ৪৬০ কোটি বছরকে ‘এয়ন’, ‘এরা’, ‘পিরিয়ড’, ‘ইপক’ এবং ‘এজ’ হিসেবে বিভক্ত করেছেন ভূবিজ্ঞানীরা। তাঁদের দাবি ১১,৭০০ বছর আগে যে ‘হ্যালোসিন ইপক’ শুরু হয়েছে তারই অংশ এই ‘মেঘেলয়ান এজ।’

মেঘালয়ের একটি গুহার পাথর বিশ্লেষণ করে এই নতুন যুগের সন্ধান পেয়েছেন গবেষকরা। ১২৯০ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত মাউমলো নামক সেই গুহার স্ট্যালাগমাইট নামক চুনাপাথর বিশ্লেষণ করে এ ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছেন গবেষকরা। ভারতের দশটি দীর্ঘতম ও গভীরতম গুহার অন্যতম এই মাউমলো গুহা থেকে যে পাথর পাওয়া গিয়েছে তাতে বিজ্ঞানীরা বুঝেছেন, যুগ পরিবর্তনের সময়ে বিভিন্ন রাসায়নিক চিহ্ন এই গুহায় মজুত রয়েছে।

গবেষকরা বলছেন, মেঘালয়ান যুগের শুরুতে প্রচণ্ড খরায় চিন ও মিশরের প্রাচীন সভ্যতার অবলুপ্তি ঘটেছিল। আবহাওয়ার পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে কালঘাম ছুটেছিল তৎকালীন সমাজের। টানা ২০০ বছরের খরায় বাসস্থান ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন মিশর, গ্রিস, ফিলিস্তিন, মেসোপটেমিয়া ও সিন্ধু সভ্যতার অধিবাসীরা। সমুদ্র ও বায়ুমণ্ডলের প্রবাহে বদলের জন্যই এই খরা বলে মনে করছেন তাঁরা।

‘হ্যালোসিন ইপক’কে তিনটে যুগে বিভক্ত করেছেন ভূবিজ্ঞানীরা। ১১,৭০০ বছর আগে থেকে যে যুগ শুরু হয়েছিল, সেটার নাম তাঁরা দিয়েছেন ‘গ্রিনলান্ডিয়ান এজ’। ৮,৩০০ বছর আগে যে যুগ শুরু হয়েছিল তাঁর নাম দেওয়া হয়েছে ‘নর্থগ্রিপিয়ান এজ।’ সর্বশেষ যুগটির নাম দেওয়া হল ‘মেঘালয়ান এজ।’

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here