নয়ের দশকের থেকে ৭ গুণ দ্রুত বরফ গলছে গ্রিনল্যান্ডে: গবেষণা

0
Greenland

ওয়েবডেস্ক: পৃথিবীর মধ্যে স্থলভাগের প্রায় ৮০ শতাংশই বরফাবৃত। কিন্তু গ্লোবাল ওয়ার্মিং বা বিশ্ব উষ্ণায়ণের কবলে পড়ে তা ক্রমশ গলছে। কিন্তু গত তিন দশক ধরে এই গলার পরিমাণ বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে বহু গবেষণা চলছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে।

বর্তমানে আরও একটি গবেষণা করা হয়েছে এই বিষয়টিতেই। সেই গবেষণায় অংশগ্রহণ করেছিলেন ৯৬ জন পোলার সায়েন্টিস্ট। তাঁরা ৫০টি আন্তর্জাতিক সংস্থার সঙ্গে যুক্ত। সেই দলটি গ্রিনল্যান্ডের বরফ গলার একটি চিত্র প্রকাশ করেছেন। এই গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে ‘নেচার’ পত্রিকায়।

সেই গবেষণায় বলা হয়েছে, ১৯৯২ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত গ্রিনল্যান্ডের বরফ গলেছে ৩.৮ ট্রিলিয়ন মেট্রিকটন। এই পরিমাণ গ্লোবাল সি লেবেল অর্থাৎ পৃথিবীর সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা এক সেন্টিমিটারের বেশি বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

এই গলনের পরিমাণ ১৯৯০ দশকের চেয়ে প্রায় সাতগুণ বেশি। ১৯৯০ সালে এই পরিমাণ ছিল ৩৩ বিলিয়ন টন বছরে। সেই পরিমাণ শেষ দশকে দাঁড়িয়েছে ২৫৪ বিলিয়ন টন বছরে।

২৬টি গবেষণা ও ১১টি আলাদা আলাদা উপগ্রহের তোলা ছবি এই গবেষণায় ব্যবহার করা হয়েছে। তাতে এই বরফের আকৃতি, অবস্থান, পরিমাণ, আয়তন ইত্যাদির পরিবর্তনকে ভালো করে পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই বরফের কেন্দ্রের গভীরতা এক মাইলের বেশি। কিন্তু এত দ্রুত এই বরফ গলার পরিমাণের কারণে সমুদ্রের উচ্চতা প্রায় ২০ ফুট বেড়ে যাবে।

ইতিমধ্যেই, গত শতকে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ১৩ থেকে ২০ সেন্টিমিটার বেড়ে গিয়েছে। তবে এর বেশির ভাগটাই বেড়েছে গত দুই দশকে।

এখনও পর্যন্ত প্রায় চার ট্রিলিয়ন টন বরফ গলে সমুদ্রে প্রবেশ করেছে। এই পরিমাণ বরফ সমুদ্রপৃষ্ঠকে ১০.৮ মিলিমিটার বাড়িয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা প্রতি এক সেন্টিমিটার বৃদ্ধির ফল গোটা বিশ্বে প্রায় ৬০ লক্ষ মানুষের ক্ষতি।  

সিওপি২৫ বৈঠকে পৃথিবীকে আরও বিপর্যয়ের হাত থেকে বাঁচার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। তারই অন্যতম পদক্ষেপ হল কিয়টো প্রোটোকল ১৯৯২। কিন্তু তার পর কেটে গিয়েছে প্রায় তিন দশক। কিন্তু তেমন কোনো সুফল পাওয়া যায়নি।

পড়ুন – অবশেষে চন্দ্রযান ২-এর ল্যান্ডার বিক্রমের হদিশ দিল নাসা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.